Categories
অন্য খবর

বলুন তো এটা আসলে বাড়ি না বাস!!

ওয়েবডেস্কঃ

গাছ বাড়ি মানে ট্রি হাউস নামটা সকলের হয়তো শোনা। একটা অন্য রকম অনুভূতি হয় এই ট্রি হাউসের কথা শুনলেই। এ পৃথিবীতে মানুষের কত রকমেরই না শখ আছে। এক একজন একএক ভাবে নিজের শখ পূরন করেন। তাই বলে বাস বাড়ি!! আরে না না অবাক হবেন না। আসলে বাড়িটাই বাস । মানে বাসের আদলে আস্ত একটা বাড়ি বানিয়ে ফেললেন পাড়ুইয়ের এক মৃৎ শিল্পী উদয় দাস। আর সেই বাড়ি ঘিরে ভির জমাচ্ছে আমজনতা। বাস বাড়ি দর্শনের পাশাপাশি চলছে সেলফি তোলার ভির।

মাঠের পাশে নিজ বাস ভূমি তে উদয় দাস দাঁড় করিয়ে ফেলেছেন কয়েক লক্ষ টাকা খরচ করে পশ্চিমবঙ্গের বোলপুর-সিউড়ি রুটের আস্ত একটা বাস।তবে বাসে উঠতে গেলে নজরে আসে, আসলে সেটা বাস নয়, বাড়ি। বীরভূম জেলার পাড়ুই থানার ধানাইমোড় গ্রামের মৃৎশিল্পী উদয় দাসের কর্মকান্ডে এমন ভুল হওয়াটাই স্বাভাবিক। উদয়ের ইচ্ছে তৈরি হয় সেই ছোটোবেলায়। যখন প্রথমবার যখন বাসে চড়ে সে। বাস ছোটো বেলায় উদয়ের মনে জায়গা করে নেয়।তখনি তার ইচ্ছে জাগে বাসের আদলেই একটা বাড়ি বানাবে সে।ছোটবেলা থেকে রাজমিস্ত্রির জোগাড়ের কাজ করতেন উদয়। পরে আক্ষরিক অর্থেই রাজমিস্ত্রি হয়ে ওঠেন তিনি। উদয়ের পরিবার মৃৎশিল্পের কাজেও সঙ্গেও যুক্ত। বংশগত ভাবে সেই কাজও শিখে ফেলেছিলেন তিনি। উদয়ের সেই শিল্পী সত্ত্বার পরিচয় মিলেছে এই বাস বাড়ি নির্মাণেই।
বরাবর মাটির বাড়িতেই বাস করেছেন উদয়। স্বপ্ন ছিল কোঠার বাড়িতে বাস করবেন। স্বপ্নের সঙ্গে ইচ্ছার মিশেলে উদয় তৈরি করেছেন এই বাসের আদলে বাড়ি। তাঁর কথায়, ‘‘গত বছর লকডাউনের সময় কাজ শুরু করেছিলাম। তার পর চড়া দামের কারণে বাড়ি নির্মাণের কাজ বন্ধ রেখেছিলাম। তবে এ বছর ঋণ নিয়ে শখের বাড়ি নির্মাণের কাজ শেষ করেছি।’’ উদয়ের স্ত্রী চন্দনা বলছেন, ‘‘বাস-বাড়ি তৈরি কথা শুনে আমি প্রথমে আঁতকে উঠেছিলাম। কী ভাবে এত টাকা জোগাড় হবে! “তবে অবশেষে বাস বাড়ি তৈরি হওয়ায় খুশি চন্দনা দাসও।

69

Leave a Reply