Categories
অন্য খবর

প্রতারণার নয়া ফন্দি, ব্যাংক থেকে ধাপে ধাপে উধাও পাঁচ লক্ষ টাকা!!

ওয়েবডেস্কঃ সাত মাসে ১৭৪ বার ওঠে টাকা , অথচ রেজিস্টার্ড মোবাইল নম্বরে আসেনি কোনও মেসেজ। ফলে ব্যাংক অ্যাকাউন্ট থেকে উধাও হলো সাড়ে পাঁচ লক্ষ টাকা।

ঘটনাটি ঘটেছে বর্ধমানের মন্তেশ্বরে। সোমবার মন্তেশ্বর থানায় অভিযোগ দায়ের করেন প্রতারিত শিক্ষক বুদ্ধেশ্বর মান্ডি । তদন্তে নেমেছে পুলিশ

পুলিশ সূত্রে জানা যায় , বুদ্ধেশ্বর মান্ডি নামে প্রতারিত ওই ব্যক্তি মন্তেশ্বরের শুশুনিয়া রানীবালা বিদ্যামন্দির স্কুলের শিক্ষক। মন্তেশ্বরের সিজনা গ্রামের স্টেট ব্যাংকের শাখায় তাঁর একটি স্যালারি অ্যাকাউন্ট রয়েছে। অভিযোগ, গত কয়েকমাস ধরে সেই অ্যাকাউন্ট থেকে অনলাইনে সাড়ে পাঁচ লক্ষেরও বেশি টাকা তুলে নেওয়া হয়েছে। প্রতারকরা টাকা তুলে নিলেও প্রথমদিকে ব্যাংকের তরফ থেকে কোনও মেসেজই তিনি পাননি বলে অভিযোগ। করোনার জেরে সেভাবে তিনি ব্যাংকেও যেতেন না। মন্তেশ্বর থেকে পাশবুক আপডেট করে নিতেন। কয়েকমাস ধরে মেশিন খারাপ থাকায় তিনি পাশবই আপডেটও করতে পারেননি। মেশিন ঠিক হলে কয়েকদিন আগেই তিনি পাশবুক আপডেট করেন। আর তাতেই দেখা যায় , অ্যাকাউন্ট থেকে ধাপে-ধাপে টুকে নেওয়া হয়েছে লক্ষ লক্ষ টাকা । কখনও ১৬০০, কখনও ৪০০০, কখনও ২০০০ ।

প্রতারিত শিক্ষক জানিয়েছেন, “২০২০ সালের ১৭ ডিসেম্বর থেকে ২০২১ সালের ২৯ জুন পর্যন্ত দিনে কয়েকবার করে আমার অ্যাকাউন্ট থেকে টাকা তুলে নেওয়া হলেও কোনও মেসেজ আসেনি। শেষের দিকে মেসেজ আসার পর পাশবুক আপডেট করতে গিয়ে দেখি অ্যাকাউন্ট থেকে বহু টাকা উধাও হয়ে গিয়েছে। প্রথম থেকে ব্যাংকের মাধ্যমে এই মেসেজ এলে এত বড় দুর্ঘটনা ঘটত না।”

অন্যদিকে , ব্যাংকের ওই শাখার ম্যানেজারকে ফোন করা হলে তিনি এবিষয়ে কোনও মন্তব্য করবেন না বলে জানিয়ে দেন

165

Leave a Reply Cancel reply