Categories
আবহাওয়া

ঘনাচ্ছে নিম্নচাপ, মঙ্গল থেকেই বদলাচ্ছে বঙ্গের আবহাওয়া! ভারী বৃষ্টি একাধিক জেলায়

ওয়েবডেস্কঃ

নতুন করে নিম্নচাপ তৈরি হয়েছে বঙ্গোপসাগরে। উত্তর পশ্চিম বঙ্গোপসাগরে তৈরি এই নিম্নচাপ ইতিমধ্যেই মধ্যভারতে অবস্থান করছে। আর আগামী সপ্তাহের মাঝামাঝি আরও একটি নিম্নচাপ তৈরি হবে উত্তর বঙ্গোপসাগরে। মূলত নিম্নচাপের কারণেই বৃষ্টি হচ্ছে বঙ্গে। সেই বৃষ্টির পরিমাণ আরও বাড়তে পারে বলে জানিয়েছে আলিপুর আবহাওয়া দফতর। তাঁদের অনুমান, নতুন যে নিম্নচাপটি তৈরি হতে চলছে, প্রাথমিক ভাবে তা বাংলাদেশের দিকে যেতে পারে। ২৮ জুলাই বুধবার প্রবল নিম্নচাপ তৈরির সম্ভাবনা রয়েছে। এর প্রভাবে দক্ষিণবঙ্গে মঙ্গলবার থেকেই বৃষ্টি বাড়তে পারে। ভারী থেকে অতি ভারী বৃষ্টির সম্ভাবনা তৈরি হয়েছে দক্ষিণবঙ্গের বেশ কয়েকটি জেলায়। শুধু তাই নয়, সারা দক্ষিণবঙ্গ জুড়ে এই মেঘলা আকাশ হালকা মাঝারি বৃষ্টি হতে পারে মঙ্গলবার থেকে।

অপরদিকে, সোমবার থেকে বৃষ্টি বাড়বে উত্তরবঙ্গের দার্জিলিং, কালিম্পং, আলিপুরদুয়ার, কোচবিহার, জলপাইগুড়ি জেলায়। ওই পাঁচ জেলাতেই ভারী বৃষ্টির সম্ভাবনা রয়েছে সোমবার ও মঙ্গলবার। আবহাওয়া দফতর সূত্রে খবর, ৭০ থেকে ১০০ মিলিমিটার বৃষ্টিপাতের সম্ভাবনা রয়েছে।

তবে, মঙ্গলবার থেকে দক্ষিণবঙ্গের উত্তর ও দক্ষিণ ২৪ পরগনা, কলকাতা, পূর্ব মেদিনীপুর, হাওড়া, হুগলি ও পূর্ব বর্ধমান জেলায় মাঝারি থেকে ভারী বৃষ্টির সম্ভাবনা রয়েছে জানিয়েছে আলিপুর আবহাওয়া দফতর। বুধবার অতি ভারী বৃষ্টির (২০০ মিলিমিটার পর্যন্ত) আশঙ্কা রয়েছে উত্তর ও দক্ষিণ ২৪ পরগনা এবং পূর্ব মেদিনীপুরে, অর্থাৎ বিশেষ সতর্কবার্তা রয়েছে উপকূলীয় জেলাগুলির জন্য। ভারী বৃষ্টির সর্তকতা রয়েছে কলকাতা, হাওড়া, হুগলি, পশ্চিম মেদিনীপুর, পূর্ব বর্ধমান ও নদিয়া জেলাতেও। এই জেলাগুলিতে ৭০ থেকে ১০০ মিলিমিটার বৃষ্টিপাতের সম্ভাবনা রয়েছে। বৃহস্পতিবারও এই এলাকাগুলিতে একই রকম বৃষ্টির সম্ভাবনা রয়েছে। শুক্রবার থেকে কমতে পারে বৃষ্টিপাত।

তবে, শুক্রবার দু-এক পশলা থেকে ভারী বৃষ্টি হওয়ার সম্ভাবনা রয়েছে পশ্চিমের জেলা বাঁকুড়া, পুরুলিয়া, পশ্চিম বর্ধমান এবং বীরভূমে। এই জেলাগুলিতে ৭০ থেকে ১০০ মিলিমিটার বৃষ্টিপাতের সম্ভাবনার কথা জানিয়েছে আবহাওয়া দফতর। আর ওই অঞ্চলগুলিতে বৃষ্টির প্রভাবে বেশ কিছু নদীর জলস্তর বাড়তে পারে। কলকাতা সহ বিভিন্ন পুরসভা এলাকাও জলমগ্ন হতে পারে। অন্যান্য জেলার নীচু এলাকা প্লাবিত হওয়ার আশঙ্কাও রয়েছে বলে জানিয়েছে আলিপুর আবহাওয়া দফতর।

76

Leave a Reply