Categories
রাজ্য

করোনা পরীক্ষা শিবির চালুর পরই বন্ধ দিঘার হোটেলে

প্রশ্ন করুন সরাসরি

ওয়েবডেস্কঃ ব্যবসা বাঁচাতে দিঘায় ঘুরতে আসা পর্যটকদের কোভিড পরীক্ষার দায়িত্ব নিজেদের কাঁধেই তুলে নিয়েছিলেন দিঘা-শঙ্করপুর হোটেলিয়ার্স অ্যাসোসিয়েশন।ব্যবসায়ীদের স্বার্থের কথা মাথায় রেখে স্থানীয় গ্রাম পঞ্চায়েতের সহযোগিতায় খোলা হয়েছিল করোনা পরীক্ষা শিবির।

কিন্তু, এই করোনা পরীক্ষার শিবির বন্ধের নির্দেশ দেওয়া হল পূর্ব মেদিনীপুর জেলা প্রশাসনের পক্ষ থেকে। প্রশাসনের দাবি, দিঘায় যেভাবে পর্যটকের ভিড় বাড়ছে, সেখানে দিনে কয়েক হাজার পর্যটকের করোনা করার মত কিট ও সরঞ্জাম নেই।পাশাপাশি দিঘায় এসে করোনা পজিটিভ হিসেবে ধরা পড়লে সেই মানুষদের রাখার মত পরিকাঠামোও জেলায় নেই।

জেলাশাসক পূর্ণেন্দু মাজি বলেন, “জেলায় দৈনিক প্রায় তিন থেকে সাড়ে তিন হাজার মানুষের পরীক্ষা করার কিট প্রয়োজন হয়। দিঘায় শনিবার ও রবিবারই প্রায় ২৫ হাজারের বেশি পর্যটক আসছেন। তাছাড়া রোজই ভিড় হচ্ছে। এত করোনা পরীক্ষার কিট মজুত নেই। জেলার মানুষকে আগে গুরুত্ব দেওয়া হবে। তারপরে পর্যটক। দিঘায় পরীক্ষা হচ্ছে জানলে পর্যটকরা সোজা দিঘায় চলে আসবেন। কেউ যদি সংক্রমণ নিয়ে আসেন তবে তিনি আসার পথে প্রচুর মানুষকে সংক্রমিত করে আসবেন। তা রোখাটা ও আমাদের কাছে জরুরি। পাশাপাশি সংক্রমিত মানুষকে রাখার মতো পরিকাঠামো নেই জেলায়। তাই পর্যটকদের বাড়ির বাইরে বের হতে গেলে হতে নেগেটিভ রিপোর্ট নিয়ে আসতেই হবে।”

অন্যদিকে, হোটেল সংগঠনের যুগ্ম সম্পাদক বিপ্রদাস চক্রবর্তী বলেন, “পর্যটক ও ব্যবসায়ীদের কথা মাথায় রেখে করোনা পরীক্ষার আয়োজন করা হয়েছিল। জেলা প্রশাসনের নির্দেশে তা বন্ধ করে দেওয়া হয়। এর ফলে দিঘার একাধিক হোটেলে বুকিং বন্ধ হয়ে যায়। ফলে আগামী কয়েকদিনের মধ্যে হোটেল ও বন্ধ করে দিতে হবে।”

62

Leave a Reply