Categories
করোনা

রাজ্যের কোভিড পরিসংখ্যানে অসঙ্গতি ? প্রতিবাদে মুখর সরকারি ডাক্তারদের সংগঠন

ওয়েবডেস্কঃ

এ যেনো এক আশ্চর্য ভোজবাজির খেলা ! রাজ্যের কোভিড বুলেটিন থেকে রাতারাতি উধাও প্রায় লাখ খানেকের কাছাকাছি রোগীর তথ্য। আর বিষয়টি নিয়ে প্রকাশ্যে প্রতিবাদে মুখর হয়েছেন রাজ্যেরই সরকারি ডাক্তারদের একটি সংগঠন এসোসিয়েশন অফ হেলথ সার্ভিস ডক্টরস।

স্বাস্থ্য দফতরে তাঁদের দেওয়া প্রতিবাদপত্রে দেখা যাচ্ছে, 9 জুনের সরকারী কোভিড বুলেটিনে রাজ্যে একটিভ কোভিড রোগীর সংখ্যা 14702। অথচ ঐ একই বুলেটিনে হোম কোয়ারেন্টাইন রোগীর সংখ্যা 98592, এছাড়া সেফ হোমে রোগীর সংখ্যা 1903, এমনকি কোভিড হাসপাতালের 20% বেড ভর্তি অর্থাৎ রোগীর সংখ্যা 4800 মতো। তাহলে হোম কোয়ারেন্টাইন, সেফ হোম, কোভিড হাসপাতালে সব মিলিয়ে মোট রোগীর সংখ্যা দাঁড়ায় 98592+ 1903+ 4800= 105,292। কিন্তু কোন হিসেবে এই যোগফল 14702 হয় তা নিয়েই উঠতে শুরু করেছে প্রশ্ন। আর এই গুরুতর তথ্য বিকৃতি বা ভ্রান্তি নিয়েই গতকাল AHSD পশ্চিমবঙ্গের তরফে রাজ্য প্রশাসনের দৃষ্টি আকর্ষণ করা হয়। অবশ্য প্রসঙ্গত বিষয়টি সামনে আসতেই আবার 10জুনের সরকারী বুলেটিনে একধাক্কায় হোম কোয়ারেন্টাইনে রোগীর সংখ্যা কমে দাঁড়িয়েছে 6287।

কিন্তু প্রশ্ন এটাই, যে একদিনে 92000 হোম কোয়ারেন্টাইন রোগীর রোগমুক্তি ঘটলো কোন জাদুতে ? যদিও সারা দেশের সাথে সাথে হয়তো অতিমারীর স্বাভাবিক নিয়মেই ক্রমশ আক্রান্তের লাগামছাড়া সংখ্যা খানিকটা হলেও কমেছে। কিন্তু তবুও করোনার প্রকোপ কোনোভাবেই একেবারে থেমে যায়নি বলেই বারবার সতর্ক করেছেন বিশেষজ্ঞরা। বরং এই মুহূর্তে বিন্দুমাত্র অসতর্কতা বা ঢিলেমি ই যে গতবছরের মতো মারাত্মক হয়ে যাবে সেকথাই বলছেন তাঁরা। এমনকি করোনা নিয়ে সতর্ক পদক্ষেপ হিসেবে রাজ্যে এবছরের মাধ্যমিক ও উচ্চমাধ্যমিক পরীক্ষাও বাতিল করা হয়েছে সম্প্রতি। সেই পরিস্থিতিতে কার্যত ‘তৃতীয় ঢেউ’ এর বিপদের মুখে দাঁড়িয়ে তথ্য নিয়ে এই অসঙ্গতি র চিত্র নিঃসন্দেহে প্রশ্ন জাগাচ্ছে মানুষের মনে।

63

Leave a Reply