Categories
রাজনীতি

প্রধানমন্ত্রীর বৈঠকে অনুপস্থিতির কারণ জানতে চেয়ে আলাপনকে নোটিশ কেন্দ্রের।

ওয়েবডেস্কঃ মুখ্যসচিবের পদ থেকে অবসর নিলেও কেন্দ্রের সঙ্গে দ্বন্দ্ব কমছে না আলাপন বন্দ্যোপাধ্যায়ের৷ এবার তাঁকে শোকজ নোটিশ পাঠাল কেন্দ্রীয় সরকার৷ প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদীর রিভিউ বৈঠকে কেন তিনি অনুপস্থিত ছিলেন তার কারণ জানতে চাওয়া হয়েছে নোটিশে৷ বক্তব্য জানানোর জন্য তিনদিন সময় পেয়েছেন আলাপন বন্দ্যোপাধ্যায়৷

গত শুক্রবার কলাইকুন্ডায় প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদীর রিভিউ বৈঠকে গরহাজির ছিলেন মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়৷ ছিলেন না প্রাক্তন মুখ্যসচিব আলাপন বন্দ্যোপাধ্যায়ও৷ সেই থেকে সংঘাতের সূত্রপাত৷ ওই দিনই আলাপন বন্দ্যোপাধ্যায়কে বদলির নির্দেশ পাঠায় কেন্দ্র৷ তাঁকে বলা হয়, সোমবার ৩১ মে নর্থ ব্লকে রিপোর্ট করতে হবে৷

কেন্দ্রের এই নির্দেশের বিরুদ্ধে গর্জে ওঠেন মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়৷ তিনি জানান, এই বদলির নির্দেশ অসাংবিধানিক, একতরফা এবং বেআইনি৷ মুখ্যমন্ত্রী বদলির চিঠি প্রত্যাহার করে নেওয়ার আর্জি জানান কেন্দ্রের কাছে৷ কিন্তু কেন্দ্র নিজেদের সিদ্ধান্তে অনড় থাকে৷ শেষ পর্যন্ত সোমবার মুখ্যসচিবের পদ থেকে অবসরই নেন আলাপন বন্দ্যোপাধ্যায়৷

অবসর নিলেও ওই দিনই তাঁকে নতুন পদে নিযুক্ত করেন মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়৷ আগামী তিনবছর তিনি মুখ্যমন্ত্রীর উপদেষ্টা পদে কাজ করবেন৷ বেতন পাবেন আড়াই লক্ষ টাকা৷ সঙ্গে সমস্ত ধরনের সুবিধা৷ মুখ্যমন্ত্রীর মুখ্য উপদেষ্টা হওয়ার ঘটনা এ রাজ্যে নজিরবিহীন৷ আজ থেকে তিনি মুখ্যমন্ত্রীকে নানা বিষয়ে পরামর্শে দেবেন৷ যখন যে ইস্যুতে মুখ্যমন্ত্রীর প্রয়োজন হবে সেই ইস্যুতেই পরামর্শ পাবেন তাঁর কাছ থেকে৷

অন্যদিকে সোমবার রাতেই একটি নোটিশ পাঠানো হয় প্রাক্তন মুখ্যসচিবকে৷ তারপর আলাপন বন্দ্যোপাধ্যায়কে নিয়ে কেন্দ্র-রাজ্য সংঘাত নয়া মোড় নিল৷ চিঠিতে কড়া ভাষায় বলা হয়েছে, শুক্রবার প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী এবং অন্যান্য সদস্যরা রাজ্য সরকারের প্রতিনিধিদের জন্য ১৫ মিনিট অপেক্ষা করেছিলেন৷ তারপর মুখ্যসচিবকে ফোন করার পর তিনি মুখ্যমন্ত্রীর মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের সঙ্গে মিটিং রুমে আসেন এবং কিছুক্ষণ পরই চলে যান৷ কেন্দ্রের ডাকা বৈঠকে তিনি যোগ না দিয়ে শৃঙ্খলাভঙ্গ করেছেন৷

30

Leave a Reply