Categories
করোনা

১লা মে থেকে সব প্রাপ্তবয়স্ক মানুষ কে করোনার টিকা, ঘোষণা প্রধানমন্ত্রীর। উঠছে প্রশ্নও!

ওয়েবডেস্কঃ মে মাস থেকে দেশে করোনার টিকাকরণ প্রসারিত হবে এবং ১লা মে থেকে ১৮ বছরের বেশি বয়সী সকলে এই টিকা নিতে পারবে বলে জানিয়েছেন প্রধানমন্ত্রী। যদিও যেখানে টিকার অভাবে অনেক রাজ্যেই টিকাকরণ স্থগিত রাখতে হচ্ছে সেখানে প্রধানমন্ত্রীর এই ঘোষণায় প্রশ্ন উঠছে বিভিন্ন মহলে।

এদিন প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী করোনা পরিস্থিতি নিয়ে ধারাবাহিক দীর্ঘ বৈঠক শেষে এই ঘোষণা করেছেন। সরকার জারি করা বিবৃতিতে বলা হয়েছে, ‘কোভিড -১৯ টিকাদান কর্মসূচির তৃতীয় পর্বের অধীনে সমস্ত প্রাপ্তবয়স্কদের টিকা দেওয়া হবে। লক্ষণীয় যে, সোমবার দেশে কোভিড -১৯-এর একদিনে ২,৭৩,৮১০ টি নতুন মামলা রেকর্ড হওয়ার পরই কেন্দ্রীয় সরকারের এই সিদ্ধান্ত এসেছে। যদিও করোনা টিকার অপ্রতুলতার কারণে পশ্চিমবঙ্গ সহ দেশের অনেক রাজ্যে নতুন করে করোনা টিকা দেওয়া স্থগিত রাখা হয়েছে। এই পরিস্থিতিতে কেন্দ্রের এই ঘোষণায় রাজ্য গুলির সমস্যা বাড়বে বলে মনে করা হচ্ছে। এছাড়াও বেশিরভাগ রাজ্যে করোনার মামলার সংখ্যা বৃদ্ধির কারণে অনেক রাজ্য থেকে অবিচ্ছিন্নভাবে অক্সিজেন ও ওষুধের অভাবের অভিযোগ প্রকাশিত হচ্ছে।

এটি উল্লেখযোগ্য যে করোনার টিকা অভিযানের আওতায় প্রথমে স্বাস্থ্যকর্মী এবং ফ্রন্ট লাইনের কর্মীদের কেন্দ্রীয় সরকার টিকা দিয়েছিল। এর পরে, ৬০ বছরেরও বেশি লোকের ৪৫ বছরেরও বেশি সময় ধরে এই ভ্যাকসিনটি অনুমোদিত হয়েছিল।

লক্ষণীয় বিষয় হচ্ছে, প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী সোমবার করোনার মামলাটি নিয়ে ঘন ঘন বৈঠক করেছিলেন। এই বৈঠকের মাধ্যমে তিনি এই বার্তাটি দিয়েছিলেন যে করোনার নতুন ক্ষেত্রে ‘অভূতপূর্ব উত্সাহ’ নিয়ে কেন্দ্রীয় সরকার ‘সতর্কতা মোডে’ রয়েছে। প্রধানমন্ত্রী করোনার পরিস্থিতি নিয়ে আলোচনার জন্য সকাল সাড়ে ১১ টায় প্রথম বৈঠক করেন। পরে প্রধানমন্ত্রী কনভিড -১৯ এর বর্তমান অবস্থার বিষয়ে দেশের শীর্ষ চিকিৎসকদের সাথে মতবিনিময় করেন। সন্ধ্যা ছয়টায় দেশের শীর্ষ ওষুধ সংস্থাগুলির সাথে একটি অনলাইন বৈঠক করেন তিনি।

35

Leave a Reply