ওয়েবডেস্কঃ ভোট এলেই প্রতিশ্রুতি, আর ভোট পেড়োলেই দেখা মেলেনা কারোর। দীর্ঘ বছরের রাস্তা সাড়াইয়ের দাবী অপুর্ণই থেকে গেছে রায়গঞ্জের সুভাষগঞ্জ ঘোষপাড়ার বাসিন্দাদের। বেহাল রাস্তা সংস্কারের দাবী জানিয়ে কোনো সুরাহা না মেলায় তাই এবারের ভোটে প্রার্থীদের থেকে অনেকেই মুখ ফিরিয়ে নেওয়ার কথা জানাচ্ছেন বাসিন্দাদের অনেকাংশ। আবারও আরেকটা ভোট, প্রচারে আসছেন প্রার্থীরা। তবে রাস্তা না পেলে ভোট দেবেন কিনা তা ভেবে দেখার দিন এসেছে বলে সাফ জানাচ্ছেন বাসিন্দারা।

বস্তুত, উত্তর দিনাজপুরের রায়গঞ্জ শহরের অদূরেই দেবীনগরের বেলতলা মোড় থেকে মহারাজা স্কুল পর্যন্ত রাস্তা দীর্ঘদিন ধরে বেহাল অবস্থায় রয়েছে। সামান্য বৃষ্টিতেই জল জমছে অনেক। এলাকায় জলনিকাশী ব্যবস্থা না থাকায় সমস্যায় পড়তে হচ্ছে এলাকাবাসীদের। শুক্রবার সকালে স্থানীয়রা পথ অবরোধ করে বিক্ষোভে ফেটে পড়েন।পাশাপাশি রাস্তা সংস্কার ও জল নিকাশী ব্যাবস্থার স্থায়ী সমাধান নিজ করা হলে ভোট বয়কট এর হুঁশিয়ারি দেন ২৭ নং ওয়ার্ডের বাসিন্দারা।

স্থানীয় কাউন্সিলর জানান ওই রাস্তাটি পঞ্চায়েত এলাকার মধ্যে পড়লেও তার মেন্টেনেন্স করাহয় রায়গঞ্জ পৌরসভার পক্ষ থেকেই। এবং ঐ রাস্তায় শহরের দুটি বড়ো উচ্চ বিদ্যালয়, হোস্টেল থাকায় ওটা একটা গুরুত্বপূর্ণ রাস্তা। সেখানেও বারবার বলা সত্বেও স্থানীয়রা রাস্তা দখল করে বাড়ির প্রাচীর নির্মাণ করে রেখেছেন, বহুবার বলা সত্ত্বেও ড্রেনের জন্যেও রাস্তা ছাড়েননি তারা। রাস্তার জায়গা না ছাড়ার জন্য কোনো কাজ করা সম্ভব হয়নি। ওই ওয়ার্ডের কাউন্সিলর সমস্ত অভিযোগের উত্তর দিয়ে বলেন এই অবরোধ সম্পূর্ণ ভাবে রাজনৈতিক উস্কানিতেই করানো হচ্ছে।

এই বিষয়ে রায়গঞ্জ বিধানসভা কেন্দ্রের বিজেপি প্রার্থী কৃষ্ণ কল্যাণী বলেন, এই রাস্তার কোনো মাস্টারপ্ল্যান করাই হয়নি তাই কনক উন্নয়ন হয়নি। ড্রেনেজের কোনো ব্যবস্থা না থাকার ফলেই এই সমস্যা । এখানে এতদিন ধরে তৃণমূলের কাউন্সিলর কোনো কাজ ই করেন নি তাই মানুষের উচিত এবারে বিজেপি কে জয়ী করে এনে নিজেদের উন্নয়ন বুঝে নেওয়া, এমনটাই বলেন বিজেপি প্রার্থী কৃষ্ণ কল্যাণী।

83