ওয়েব ডেস্ক এপ্রিল, ৭,২০২১: প্রকাশ্য দিবালোকে যুবককে গুলি করে হত্যার ঘটনায় চাঞ্চল্য ছড়াল কোচবিহারে। ও গোটা ঘটনায় পুলিশের ভূমিকা নিয়ে প্রশ্ন তোলে স্থানীয়রা। টায়ার জ্বালিয়ে, রাস্তার উপর গাছ ফেলে তীব্র প্রতিবাদ-বিক্ষোভে উত্তাল কোচবিহার।

আজ বুধবার সকালে কোচবিহার পৌরসভার ৪ নম্বর ওয়ার্ডে দুই বাইক আরোহী এসে গুলি করে এক ৩২ বছর বয়সী যুবক প্রাণতোষ সাহাকে। কামেশ্বরী রোডের শান্তিনগর এলাকায় একটি সোনা-রুপোর গয়নার দোকান রয়েছে প্রাণতোষ সাহার। অন্যান্য দিনের মতোই এদিনও সকালে দোকান খুলছিলেন তিনি। অভিযোগ, ঠিক সেই সময়েই বাইকে চেপে সেখানে হাজির হয় দুই যুবক। বন্দুক তাক করে ৩২ বছরের ওই ব্যবসায়ীর দিকে গুলি চালানো হয়। দিনেদুপুরে গুলির আওয়াজে তীব্র চাঞ্চল্য ছড়ায় এলাকায়। প্রাণতোষকে সঙ্গে সঙ্গে কোচবিহারের MJN মেডিক্যাল কলেজে নিয়ে যাওয়া হয়। সেখানেই চিকিৎসকরা তাঁকে মৃত বলে ঘোষণা করেন।

এরপরই পুলিশের ভূমিকা নিয়ে প্রশ্ন তুলে বিক্ষোভ দেখাতে শুরু করেন স্থানীয়রা। রাস্তায় টায়ার জ্বালিয়ে, গাছের গুঁড়ি ফেলে চলে প্রতিবাদ। পরিস্থিতি সামাল দিতে আসরে নামে পুলিশ। অভিযোগ, সেই সময় পুলিশের সঙ্গে ধস্তাধস্তিও হয় বিক্ষোভকারীদের। স্থানীয়দের একাংশের দাবি, ব্যবসায়ী বিজেপি কর্মী ছিলেন। শাসকদলের তরফেই এই কাণ্ড ঘটানো হয়েছে। তৃণমূল আবার পালটা দাবি করে কাঠগড়ায় তুলেছে গেরুয়া শিবিরকেই।

 এদিনের ঘটনায় এখনও পর্যন্ত কয়েকজনকে আটক করে জিজ্ঞাসাবাদ চালাচ্ছে পুলিশ। যদিও মূল দুই অভিযুক্ত এখনও অধরা।

33