৭/৪/২০২১,ওয়েবডেস্কঃ

মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের সভার দিনই কোচবিহারে গুলিবিদ্ধ হয়ে মৃত্যু হল ৩২ বছরের এক যুবকের। মৃতের নাম প্রাণতোষ সাহা। পয়েন্ট ব্ল্যাক রেঞ্জ থেকে ওই যুবকের মাথায় গুলি করে দুষ্কৃতীরা। হাসপাতালে নিয়ে যাওয়ার সঙ্গে সঙ্গেই চিকিত্সকরা তাঁকে মৃত বলে ঘোষণা করেন। ঘটনাটি ঘটেছে কোচবিহারের ৪ নম্বর ওয়ার্ড কামেশ্বরী রোডে। এই ঘটনায় গোটা এলাকায় চরম উত্তেজনা ছড়িয়েছে।

প্রসঙ্গত, চতুর্থ দফায় ১০ এপ্রিল শনিবার কোচবিহারে ভোট। ভোটগ্রহণ হবে কোচবিহারের ৯টি বিধানসভা কেন্দ্রে- মেখলিগঞ্জ, মাথাভাঙা, কোচবিহার উত্তর, কোচবিহার দক্ষিণ, শীতলকুচি, সিতাই, দিনহাটা, নাটাবাড়ি, তুফানগঞ্জ। তার আগে আজ কোচবিহারে নির্বাচনী সভা রয়েছে তৃণমূল নেত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের। এদিকে সভার আগেই দিনে দুপুরে দুষ্কৃতীদের গুলিতে খুন যুবক। কোচবিহার পুরসভার পুরপ্রশাসক ভূষণ সিংয়ের বাড়ির পিছনেই এই শুটআউটের ঘটনাটি ঘটেছে বলে জানা যাচ্ছে। সবমিলিয়ে উত্তপ্ত গোটা এলাকা। দোষীদের অবিলম্বে গ্রেফতারের দাবিতে থানার সামনে চলছে বিক্ষোভ। টায়ার জ্বলিয়ে বিক্ষোভ দেখাচ্ছেন স্থানীয় বাসিন্দারা। গোটা এলাকায় ব্যাপক উত্তেজনা ছড়িয়েছে। আতঙ্কিত হয়ে পড়েছেন এলাকাবাসী।

শুটআউটের ঘটনায় উত্তরবঙ্গ উন্নয়নমন্ত্রী রবীন্দ্রনাথ ঘোষ সরাসরি নিশানা করেছেন নির্বাচন কমিশনকে।

মৃতের পরিবারের কথায়, খুনের পিছনে রয়েছে ব্যবসায়িক শত্রুতা। জানা গিয়েছে, পেশায় স্বর্ণ ব্যবসায়ী ওই যুবক রোজকার মত আজও সকালে বাড়ি থেকে বেরিয়ে নিজের দোকানে যান। সেইসময়ই তাঁর উপর হামলা হয়। দুই যুবক বাইকে করে এসে প্রাণতোষ সাহা নামে ওই যুবকের মাথা লক্ষ্য করে গুলি চালায়। পরিবার সূত্রে জানা গিয়েছে যে, তিনি কোনও রাজনৈতিক দলের সঙ্গে যুক্ত নন। পরিবারের কথায়, উদ্দেশ্যপ্রণোদিতভাবে ব্যবসার ক্ষতি করতে, দোকানের জিনিস লুঠ করতেই এই হামলা।

29