ওয়েবডেস্ক: ইটাহারঃ সমস্ত জল্পনার অবসান ঘটিয়ে অনুগামীদের সঙ্গে নিয়ে গেরুয়া পতাকা হাতে তুলে নিলেন ইটাহারের বিদায়ী বিধায়ক অমল আচার্য। বুধবার ইটাহার সদর চৌরাস্তা এলাকায় উল্কা ক্লাব মাঠে ইটাহার বিধানসভা বিজেপি পার্টির পক্ষ থেকে এই এক নির্বাচনী কর্মীসভা ও যোগদান মেলার আয়োজন করা হয়। এদিন বিকেলে এই কর্মীসভায় ইটাহার তথা সমগ্র উত্তর দিনাজপুর জেলার হেবিওয়েট তৃণমূল কংগ্রেসের বিদায়ী বিধায়ক অমল আচার্য তার অনুগামীদের নিয়ে সোনা বাংলা গড়ার লক্ষে দেশের প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদীর হাত শক্ত করতে বিজেপির পতাকা হাতে তুলে নেয়। এই যোগদান ঘিরে সদর চৌরাস্তা এলাকায় গেড়ুয়া পতাকায় ঢেকে ফেলে অমল অনুগামীরা। পাশাপাশি এদিন উল্কা ক্লাব মাঠ প্রাঙ্গণ কার্যত জোনজোয়ারের আকার ধারন করে। এদিন রায়গঞ্জ লোকসভার সাংসদ তথা কেন্দ্রীয় নাড়ি ও শিশুকল্যাণ প্রতিমন্ত্রী দেবশ্রী চৌধুরী ও বালুরঘাট লোকসভার সাংসদ ডঃ সুকান্ত মজুমদার অমল আচার্যর হাতে গেরুয়া পতাকা তুলে দেন। এদিন অমল আচার্য ইটাহার বিধানসভা এলাকার ব্লক তৃণমূল সভাপতি, যুব তৃণমূল সভাপতি সহ শাখা সংগঠনের কয়েক হাজার তৃণমূল সমর্থকে সঙ্গে নিয়ে বিজেপিতে যোগ দেন। এদিন কংগ্রেসের অনেক নেতৃত্ব এই যোগদান মেলায় বিজেপির পতাকা হাতে তুলে নেয়। পাশাপাশি এদিন ইটাহার শিবাজী ক্লাবের সকল সদস্যরা ডঃ শিবাজী বসাকের নেতৃত্বে বিজেপিতে যোগদান করে। তৃণমূলের বিদায়ী বিধায়ক আসন্ন বিধানসভা নির্বাচনে তৃণমূলের টিকিট না পেয়ে এবং দল থেকে যোগ্য সম্মান না পেয়ে ক্ষুদ্ধ হয়েই বিজেপিতে যোগদান করলেন বলে জানাযায়। পাশাপাশি উত্তর দিনাজপুর সহ ইটাহার বিধানসভায় বিজেপির মাটি আরো শক্ত হল বলে জানান জেলা বিজেপি নেতৃত্ব। এদিনের কর্মসূচিতে উপস্থিত ছিলেন, রায়গঞ্জ লোকসভার সাংসদ তথা কেন্দ্রীয় নাড়ি ও শিশুকল্যাণ প্রতিমন্ত্রী দেবশ্রী চৌধুরী ও বালুরঘাট লোকসভার সাংসদ ডঃ সুকান্ত মজুমদার, বিজেপি পার্থী অমিত কুমার কুন্ডু, জেলা বিজেপি সভাপতি বিশ্বজিৎ লাহিড়ী, বিজেপি নেতা অমল আচার্য, জেলা বিজেপির সাধারণ সম্পাদক বাসুদেব সরকার, জেলা বিজেপি পর্যবেক্ষক শুভেন্দু শেখর রায়, জেলা যুব যুব মোর্চা সভাপতি গৌতম বিশ্বাস, জেলা সহ সভাপতি নিমাই সিংহ, ইটাহার বিধানসভার কনভেনর দিলীপ ঋষি, কো- কনভেনর শ্যামল চৌধুরী, ইউনিস হক, জেলা যুব নেতৃত্ব মিঠুন ঘোষ, অশোক দাস সহ অন্যান্য বিজেপি নেতৃত্ব।

97