সাংবাদিক বৈঠকে মুখ্য নির্বাচন কমিশনার

ওয়েবডেস্ক: কোচবিহার জেলার দিনহাটায় বিজেপি কর্মীর রহস্য মৃত্যুর ঘটনার খোঁজখবর নিচ্ছে নির্বাচন কমিশন। পাশাপাশি দার্জিলিং পার্বত্য এলাকার গোর্খা জনমুক্তি মোর্চার বেশ কয়েকজন নেতা এবং বিমল গুরুংয়ের বিষয়েও খোঁজখবর নিতে শুরু করেছে নির্বাচন কমিশন। বুধবার শিলিগুড়ির সুকনার কাছে একটি বেসরকারী হোটেলে সাংবাদিক বৈঠক করেন মুখ্য নির্বাচনী আধিকারিক সুনিল আরোরা। মঙ্গলবার
উত্তরবঙ্গের বিভিন্ন জেলার জেলাশাসক ও পুলিশ সুপারদের সঙ্গে নির্বাচন সংক্রান্ত বিষয় নিয়ে বৈঠক করেন নির্বাচন কমিশনের প্রতিনিধি দল। মুখ‍্য নির্বাচনী কমিশনার সুনীল আরোরা, সুদীপ জৈন, সুশীল চন্দ্র, রাজীব কুমার সহ মোট ৬ সদস্যের প্রতিনিধি দল বুধবার সাংবাদিক বৈঠক করে জানান উত্তরবঙ্গের প্রতিটি আসনের দিকে নজর রয়েছে তাদের। ইতিমধ্যেই কোন কোন বুথ কে স্পর্শ কাতর হিসেবে চিহ্নিত করে বাড়তি নজরদারি দেওয়া হবে তাও স্থির হয়েছে। পাশাপাশি গোটা দেশে যেভাবে করণা আক্রান্তের সংখ্যা বাড়ছে, সেদিকে তাকিয়ে কোভিড নিয়মকানুন মেনেই ভোট প্রক্রিয়া চালানো যায় কিনা সে বিষয়টিও দেখা হচ্ছে। মোটের উপর দক্ষিণবঙ্গের পাশাপাশি উত্তরবঙ্গের ভোট প্রক্রিয়াও যাতে শন্তিপূর্নভাবে সম্পন্ন হয় সেদিকেই নজর নির্বাচন কমিশনের।

পাশাপাশি সিভিক ভলেন্টিয়ার দিয়ে এবার আর ভোট নয়। সিভিক ভলেন্টিয়ার কে নির্বাচন প্রক্রিয়ায় কোনো রকম ভাবে অংশগ্রহণ করানো যাবে না বলে জানিয়ে দিয়েছেন নির্বাচন কমিশনার সুনিল আরোরা। পাশাপাশি অসম এবং পশ্চিমবঙ্গে আধাসামরিক বাহিনী এবং পুলিশের অভিযানে প্রচুর নগদ অর্থ এবং নেশার সামগ্রী উদ্ধারের বিষয়টি নিয়ে তিনি উদ্বেগ প্রকাশ করেন। কোচবিহারের দিনহাটায় বিজেপি কর্মীর রহস্যমৃত্যুর ঘটনার খোঁজখবর করতে ঘটনাস্থলে যেতে পারে নির্বাচন কমিশনের প্রতিনিধিদল বলে জানা গিয়েছে। গোটা ঘটনার রিপোর্ট জেলা পুলিশ সুপারের কাছ থেকে চেয়ে পাঠানো হয়েছে বলে জানিয়েছেন নির্বাচন কমিশনার সুনিল আরোরা।

24