ওয়েব ডেস্ক মার্চ ২৩,২০২১: সম্প্রতি রায়গঞ্জ বিশ্ববিদ্যালয় ঘটে যাওয়া ছাত্রীর শ্লীলতাহানির তদন্ত এবং সেই সংক্রান্ত নানা বিষয়ে বিভিন্ন দাবি সম্বলিত স্মারকলিপি গতকাল  বিশ্ববিদ্যালয় কর্তৃপক্ষকে প্রদান করল ভারতের ছাত্র ফেডারেশন (SFI)। গতকাল এসএফআইয়ের রায়গঞ্জ বিশ্ববিদ্যালয় ইউনিট এর সদস্যরা রায়গঞ্জ বিশ্ববিদ্যালয়ের রেজিস্ট্রার মারফত উপাচার্য কে প্রতিনিধি মূলক ডেপুটেশন দেন।  প্রতিনিধি দলে ছিলেন প্রত্যুষ রায়, ব্রততী সেনগুপ্ত ও বিশ্বজিৎ কর্মকার।

সংগঠনের তরফ এ দাবি তোলা হয় নিরপেক্ষ তদন্তের দাবি তোলা হয়। এছাড়া বলা হয় যে তদন্ত কমিটি গঠন হবে তাতে যেন একজন আইনজ্ঞ, মনোবিদ ও জেন্ডার সেন্সেটাইজেশান  বিশেষজ্ঞ থাকেন। তাঁরা আরো বলেন যে বর্তমানে লিঙ্গ বৈষম্য বাড়ছে। ফলে শ্লীলতাহানীর শিকার হচ্ছেন মহিলারা। এইসব বিষয় নিয়ে সচেতনতামূলক শিবির  বিশ্ববিদ্যালয় কর্তৃপক্ষকে আয়োজন করতে হবে। তাঁরা আরও দাবি তোলেন যে তদন্তের রিপোর্ট দ্রুত পেশ করে অভিযুক্তকে দোষী পাওয়া গেলে তার বিরুদ্ধে শাস্তিমুলক ব্যবস্থা গ্রহণ করতে হবে। সংগঠনের তরফ থেকে আরও জানানো হয়েছে সম্প্রতি বিশ্ববিদ্যালয়ের অভিযুক্তের ফটো সম্বলিত যে পোস্টার তাদের সংগঠনের নাম দিয়ে সাঁটা হয়েছে তা তাঁরা সাঁটেন নি। তাই এ বিষয়ে উপযুক্ত তদন্তের দাবি করেন তারা।

79