ওয়েব ডেস্ক মার্চ ১৮,২০২১: উত্তরপ্রদেশে মন্দিরে ঢুকে জল খাওয়ায় এক মুসলিম কিশোরকে মারধরে অভিযুক্তকে সমর্থন করলেন বিজেপি নেতা। সম্প্রতি একটি ভিডিওর সোশ্যাল মিডিয়ায় ভাইরাল হয়ে যায়। ভিডিওতে দেখা গিয়েছে, প্রথমে অভিযুক্ত যুবক ওই কিশোরকে ধরে তার নাম-পরিচয় জানতে চায়। সে কেন মন্দিরে ঢুকেছে, তাও জানতে চায় সেই যুবক। জবাবে ওই কিশোর জানায়, ভীষণ জলতেষ্টা পেয়েছিল তার। তাই মন্দিরে জল পান করতে ঢুকেছিল। উত্তর দেওয়ার পরই ওই কিশোরকে বেধড়ক মারধর শুরু করে ওই যুবক। ভিডিওটি ভাইরাল হতেই বিতর্ক ঘনিয়ে ওঠে নেট দুনিয়ায়।

পুলিশ অভিযুক্ত শৃঙ্গীনারায়ণ যাদবকে গ্রেপ্তার করলেও জামিন পেয়ে গিয়েছে সে। টুইটারে সেই অভিযুক্তেরই সমর্থনে হ্যাশট্যাগ চালু হয়ে গিয়েছে। অনেকেই তাকে সমর্থন করেছেন। সেই দলে রয়েছেন হরিয়ানা বিজেপির (BJP) আইটি সেলের প্রধান অরুণ যাদব।

ঘটনার পরে তাঁকে টুইট করতে দেখা যায়, ”হিন্দু সিংহের মতো গর্জন করেছে। আমি শৃঙ্গি যাদবের সঙ্গে আছি।” পরে এক সর্বভারতীয় সংবাদমাধ্যমকে অরুণ জানিয়ে দেন, ”ওই যুবকের সমর্থনে একটা হ্যাশট্যাগ চালু হয়েছে। এবং আমরা ওকে সমর্থন করছি।” গাজিয়াবাদের যে মন্দিরে কিশোরটি জল খেতে ঢুকেছিল, সেই মন্দিরের প্রধান পুরোহিত নরসিংহানন্দ সরস্বতীও সমর্থন করেছেন অভিযুক্তকেই। কেবল তাই নয়, তিনি যে অনেককেই এব্যাপারে ‘প্রশিক্ষণ’ দিয়ে রেখেছিলেন স্বীকার করে নিয়েছেন তাও। তাঁর কথায়, ”আমি আমার অনুগামীদের শিখিয়ে রেখেছিলাম সংখ্যালঘুরা এখানে ঢুকে পড়লে তাদের কীভাবে শিক্ষা দিতে হবে। শুক্রবারও ওরা যা করেছিল তা আমারই নির্দেশে।” তবে তাঁর আফশোস একটাই। ঘটনার ভিডিও না করলে তা প্রকাশ্যে আসত না বলেই মনে করছেন নরসিংহানন্দ।

ঘটনার নিন্দায় মুখর হয়েছেন অনেকেই। আরজেডি নেতা তেজস্বী যাদব থেকে অভিনেত্রী স্বরা ভাস্কর, অনেকেই নিগৃহীত কিশোরটির কাছে ক্ষমা চেয়েছেন।

38