ওয়েবডেস্কঃ আজ উত্তর দিনাজপুর জেলার চাকুলিয়া ও চোপড়া বিধানসভা এলাকায় পৃথক পৃথক দুটি কর্মসূচিতে তৃণমূল ও বিজেপির দলবদলের হিরিকে বীতশ্রদ্ধ হয়ে বেশ কিছু মানুষ বামফ্রন্টে যোগদান করেন বলে খবর।

চাকুলিয়ার ফরওয়ার্ড ব্লক প্রাথি আলী ইমরান রমজ জানিয়েছেন 400 মতন লোক তৃণমূল দল ছেড়ে স্থানীয় কিছু নেতৃত্ব তারাও কিন্তু আমাদের সঙ্গে আজকে যোগদান করেছে তারা তৃণমূলের সঙ্গে দীর্ঘদিন রাজনীতি করে এটা বুঝে গেছে তৃণমূল মানুষকে ভুল পথে পরিচালনা করছে ।তাতে মানুষের উন্নয়ন হচ্ছে না মানুষকে শুধু কিছু সুবিধা পাইয়ে দিয়ে তাদেরকে বোকা বানিয়ে রাখার ব্কাজ করছে। সেগুলো বুঝে তারা আজকে তৃণমূলে দুর্নীতির বিরুদ্ধে লুটেরাদের বিরুদ্ধে যেভাবে তৃণমূলের নেতা কর্মী পঞ্চায়েতের মেম্বার থেকে পঞ্চায়েত সমিতি জেলা সবাই মিলে এলাকাবাসীকে বিভিন্ন চাকরির নামে টাকা লুট বিভিন্ন কাজ পাইয়ে দেওয়ার নামে যে ভাবে লুট করছে মাটি চুরি হচ্ছে ।এবার থেকে টাকা চুরি করে না হচ্ছে ।এই সমস্ত জিনিসের দুর্নীতি থেকে মানুষ বীতশ্রদ্ধ । তারা কিন্তু আস্থা রেখেছে ফরওয়ার্ড ব্লক দল এর উপরে । পরিষ্কার পরিচ্ছন্ন মনোভাব নিয়ে আমরা রাজনীতি তে মানুষের পাশে আমরা আছি। দুর্নীতির বিরুদ্ধে আমরা লড়াই করি। সেই দেখে তারা আজকে আমাদের নেতৃত্বে ফরওয়ার্ড ব্লকের মত সচ্ছ দলে যোগদান করেছে।

অন্যদিকে এদিন চোপড়ার ঘিরনীগাঁও গ্রাম পঞ্চায়েতের লাল বাজারে সংযুক্ত মোর্চা সমর্থিত CPI(M) প্রার্থী কে নিয়ে প্রার্থী পরিচিতিসভা করা হলো। লালবাজারে একটি বর্ণাঢ্য মিছিল পরিক্রমা করে।
উপস্থিত ছিলেন CPIM, INC ও ISF নেতৃত্ব।
উপস্থিত ছিলেন জোট প্রার্থী তথা পার্টির জেলা সম্পাদকমন্ডলী সদস্য তথা রাজ্য কমিটির সদস্য অানুয়ারুল হক, চোপড়া ২নং এরিয়া কমিটির সম্পাদক দবিরুল ইসলাম, চোপড়া ব্লক কংগ্রেস সভাপতি ডঃ মসিরুদ্দিন, আইএসএফ নেতা মহঃ মেহমুদ রেজা সহ ছাত্র যুব নেতৃত্ব।এই কর্মসূচির সময় তৃনমূল ও বিজেপি’র নেতাদের দলবদল নীতি থেকে বীতশ্রদ্ধ হয়ে সেই দলগুলো থেকে চোপড়া বিধানসভা অন্তর্গত ঘিরনিগাঁও অঞ্চলের প্রায় কুড়িটি পরিবার সংযুক্ত মোর্চার সিপিএম প্রার্থী কমরেড আনওয়ারুল হক এর হাত ধরে জোটে যোগ দিলেন

361