৫/৩/২০২১,ওয়েবডেস্কঃ প্রকাশিত হয়ে গেছে রাজ্যে তৃনমূল কংগ্রেসের প্রার্থী তালিকা। আজই তৃনমূল সুপ্রিম মমতা বন্দোপাধ্যায় ঘোষণা করেছেন ২৯১ টি বিধানসভা কেন্দ্রের প্রার্থী তালিকা। যে তালিকা কাউকে আনন্দে ভরিয়ে তুলেছে তো কাউকে বিদ্রোহী করেছে। ইতিমধ্যেই সোশ্যাল মিডিয়ায় ভাইরাল হয়েছে নলহাটি কেন্দ্রের গতবারের তৃনমূল কংগ্রেসের জয়ী বিধায়কের ভিডিও বার্তা। গতবারের জয়ী বিধায়ক এবার টিকিট না পেয়ে চোখে জল নিয়ে ফুপিয়ে ফুপিয়ে কেঁদে প্রার্থী পদ না পাওয়ায় নিজের যন্ত্রণার কথা বলছেন। প্রসঙ্গত,গত বিধানসভা ভোটে নলহাটি কেন্দ্র থেকে জয়ী হয়েছিলেন মইনুদ্দিন শাহ। এবার নলহাটি কেন্দ্র থেকে ভোটে লড়বেন অন্য আরেকজন। গোটা রাজ্যে ২৯১ টি কেন্দ্রের তৃণমূল প্রার্থী তালিকায় রয়েছে তারকা থেকে শুরু করে অনেক নতুন মুখ। যার ফলে অনেককেই সরিয়ে দেওয়া হয়েছে আসন্ন বিধানসভা ভোটের লড়াই থেকে। নলহাটি কেন্দ্র থেকে গতবারের বিজয়ী প্রার্থী মইনুদ্দিন ইতিমধ্যেই লাইভ ভিডিও করে তার মনের ক্ষোভ উগরে দিয়েছেন চোখে জল ও বুকে ব্যথা নিয়ে ।।তিনি জানাচ্ছেন তিনি তার নলহাটি কেন্দ্রে গত পাঁচ বছর মানুষের সেবা করা সত্বেও তাকে সরিয়ে দেওয়া হলো। তিনি দাবি করেন, মুসলিম হওয়াতেই তাকে এবার নলহাটি কেন্দ্র থেকে সরানো হলো। আরো অভিযোগ করেন তৃণমূল কংগ্রেস বিজেপির বি টিম হয়ে কাজ করছে। তিনি রাজ্যের নাগরিকের কাছে অনুরোধ করেন, তার সাথে হওয়া অন্যায়ের বিচার যাতে রাজ্যবাসী করে। আবেদন করেন কোনোভাবেই তৃণমূলকে ভোট না। তিনি আরো বলেন এই রাজ্য থেকে তৃণমূল কংগ্রেসকে উৎখাত করতে হবে।ভিডিও বার্তাতেই দল ছাড়ার কথাও ঘোষনা করলেন মনোখুন্ন হওয়া এই নেতা।অন্য দিকে আরাবুল ইসলাম নিজের ফেসবুক ওয়ালে লেখেন, “দলে আজকে আমার প্রয়োজন ফুরালো!”

টিকিট না পেয়ে সোনালী গুহ ক্যামেরার সামনে কেঁদে ভাসালেন।

রায়গঞ্জ কেন্দ্রেও কানাইয়ালাল আগরওয়ালকে প্রার্থী করায় আন্দোলনে নামে রায়গঞ্জ পৌরসভার ভাইস চেয়ারম্যানের অনুগামীরা।

60