ওয়েবডেস্কঃ বামুহা ব্রিজের দুদিকের গার্ডওয়াল ভাঙছে ক্রমশই, ঘটনায় আতঙ্কিত রায়গঞ্জ ব্লকের ৫ নম্বর শেরপুর অঞ্চলের বাসিন্দারা।

গ্রামবাসীদের অভিযোগ, একাধিক সময় এটি সংস্কারের দাবী উঠলেও তা সংস্কার হয়নি এখনো পর্যন্ত।

গ্রামপঞ্চায়েত থেকে জেলা পরিষদ পর্যন্ত বহুবার হয়েছে একাধিক দরবার , কিন্তু কনো লাভ হয়নি বলেই দাবি স্থানীয়দের।ক্ষোভের পারদ চড়তে শুরু করেছে স্থানীয় বাসিন্দাদের মধ্যে।

প্রায় ৬ বছর আগে তৈরি হয় কুলিক নদীর ওপরে বামুহা ব্রিজ।এরপর রক্ষণাবেক্ষণ এর জেরে এবং বর্ষার জলের বেগে ভাঙতে শুরু করেছে ব্রিজের দুপাশের গার্ডওয়াল। এর ফলে ক্ষতির মুখে পড়েছে রাস্তাও। গ্রামবাসীরা উদ্যোগ নিয়ে রাস্তা সংস্কার করে কনোমত চলাচলের উপযোগী করে তোলেন।

সেক্ষেত্রে সেতুর গার্ডওয়াল সংস্কারের দাবি জোরালো হয়ে উঠেছে ক্রমশই । স্থানীয়রা জানান ব্রিজের দুপাশে ভাঙার কারনে তারা সবসময় ই আতঙ্কে থাকেন এই বুঝি ভেঙে পড়ল ব্রিজ, তারপরেও বন্যার কথা একেবারেই উড়িয়ে দেওয়া যায় না।
গ্রামবাসীরা সকলে মিলে বালির বস্তা ফেলে কোনোরকম যাতায়াতের ব্যবস্থা করলেও আশঙ্কা উড়িয়ে দেয়া যায় না। তবে বর্তমানে বেড়েই চলেছে এই সমস্যা। এই ব্যাপারে একেবারেই উদাসীন প্রশাসন।

পঞ্চায়েত থেকে বলা হয় এই বিষয়টি তাদের হাতের নেই যদিও জেলা প্রশাসন কে জানানো হয়েছে বর্ষার বন্যার সময় এসে তারা একবার পরিদর্শন ও করেন, তবে কনো উত্তর মেলেনি এখনো।

66