Categories
রাজনীতি

বিজেপির পতাকা পোড়ানোর অভিযোগ কে কেন্দ্র করে তৃণমূল – বিজেপির দ্বন্দ্বে উত্তেজনা চোপড়ায়!

ওয়েবডেস্ক: বিজেপির ফ্ল্যাগ খুলে ফেলার পাশাপাশি তা পুড়িয়ে দেবার জন্য পুলিশের কাছে লিখিত অভিযোগ জানানোর অভিযোগে বাড়িতে গিয়ে মহিলাদের ধর্ষন এবং খুনের হুমকি দেওয়ার ঘটনায় চাঞ্চল্য এলাকায়। এই ঘটনায় পুলিশের কাছে লিখিতভাবে পাঁচ তৃনমূল কংগ্রেস কর্মীর বিরুদ্ধে লিখিত অভিযোগ দায়ের করা হলো চোপড়া থানায়। যদিও তৃনমূল কংগ্রেস এই অভিযোগ অস্বীকার করেছেন।
জানা গেছে,গত ২২ ফেব্রুয়ারি চোপড়া এলাকায় বিজেপি পতাকা লাগায়। সন্ধ্যা নাগাদ সেই ফ্ল্যাগ গুলো খুলে ফেলা হয় । এরপর উপেন সিংহ নামে এক বিজেপি কর্মী সংশ্লিষ্ট বিষয়ে পুলিশের কাছে লিখিত অভিযোগ দায়ের করে। ফ্ল্যাগ খোলার ঘটনায় পুলিশের কাছে নালিশ করায় মঙ্গলবার অধিক রাতে পাঁচ তৃনমূল কর্মী তার বাড়িতে ঢুকে পরিবারের মহিলাদের তুলে নিয়ে গিয়ে ধর্ষন এবং খুনের হুমকি দেয় বলে অভিযোগ। এরপর আতঙ্কিত উপেন সিংহ পাঁচ তৃনমূল কংগ্রেস কর্মীর বিরুদ্ধে লিখিত অভিযোগ করেন।এই ঘটনার চরম আতঙ্কের মধ্যে দিন কাটাচ্ছেন উপেনবাবুর পরিবার।বিজেপির অভিযোগ অস্বীকার করেছে তৃনমূল কংগ্রেস। তৃনমূল কংগ্রেসের চোপড়া অঞ্চল সভাপতি তনয় কুন্ডু জানান, চোপড়া শান্ত পরিবেশ। যারা অশান্ত করার চেষ্টা করবে দল তাদের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নেবে।এই ঘটনাটি তার নজরে ছিল না।বিষয়টি জানার পরই তিনি অভিযুক্ত পাঁচজনকে ডেকে পাঠিয়ে ঘটনাটি জানতে চাওয়া হবে বলে জানান।পুলিশ অভিযুক্তদের বিরুদ্ধে প্রয়োজনীয় পদক্ষেপ গ্রহন না করলে আগামীতে তারা বৃহত্তর আন্দোলন গড়ে তোলার হুমকি দিয়েছেন বিজেপি সহ সভাপতি সুরজিৎ সেন। তিনি বলেন, অভিযুক্তদের প্রশাসন গ্রেপ্তারের প্রতিশ্রুতি দিয়েছে। নির্ধারিত সময়ের মধ্যে দুষ্কৃতীরা গ্রেপ্তার না হলে বিজেপি নিজেদের রাস্তা নিজেরাই দেখে নেবেন। তবে এর জন্য দায়ী থাকবে তৃণমূল কংগ্রেস এবং পুলিশ ।পাশাপাশি পরিবর্তন যাত্রার সময়ে তাদের পতাকা খুলে যেভাবে জ্বালিয়ে দেওয়া হয়েছে তা লজ্জাজনক। এই ঘটনা ঘটিয়েছে তৃণমূলের নেতাকর্মীরাই। এমনকি তাদের নেতৃত্ব উপেন সিংহকে খুনের হুমকি দেওয়ার পাশাপাশি তার স্ত্রীকে ধর্ষণ করার পর খুনের হুমকি দেওয়ার যে বিষয়টি তা রাজনৈতিক উদ্দেশ্যপ্রণোদিত বলে জানান তিনি।

59

Leave a Reply