২২/২/২০২১,ওয়েবডেস্কঃ আড়াই বছর কেটে গিয়েছে জেলের অন্ধকারে। বারবার আবেদন করেও জামিন মেলেনি। অবশেষে সোমবার ৬ মাসের জন্য জামিন পেলেন সমাজকর্মী ভারভারা রাও। চিকিৎসার স্বার্থে তাঁর জামিন মঞ্জুর করেছে বম্বে হাই কোর্ট।
ভীমা-কোরেগাঁও মামলায় ২০১৮ সালের আগস্ট মাস থেকে জেলে রয়েছেন অশীতিপর ভারভারা রাও। সেখানেই গুরুতর অসুস্থ হয়ে পড়েন তিনি। দু’বার তাঁকে হাসপাতালে ভরতিও করা হয়। বর্তমানে মুম্বইয়ের নানাবতী হাসপাতালে চিকিৎসাধীন রয়েছেন তিনি। সেই চিকিৎসার স্বার্থেই এদিন ভারভারা রাওয়ের জামিন মঞ্জুর করল হাই কোর্ট। তবে কয়েকটি শর্ত রেখেছে আদালত।
হাই কোর্ট নির্দেশ দিয়েছে, জামিনে থাকাকালীন মুম্বইয়ে থাকতে হবে ভারভারা রাওকে। তদন্তের স্বার্থে এনআইএ ডাকলেই তাঁকে হাজিরা দিতে হবে। পাসপোর্ট জমা রাখতে হবে কেন্দ্রীয় তদন্তকারী সংস্থার কাছে। এদিন ৫০ হাজার টাকার ব্যক্তিগত বন্ডে সমাজকর্মীর জামিন মঞ্জুর করা হয়েছে। জামিন মঞ্জুরের সময় হাই কোর্টের বিচারপতি বলেন, “এখন ভারভারা রাওকে জামিন না দিলে আদালতের মানবাধিকার রক্ষার অধিকারকে অসম্মান করা হবে।”
আদালতের রায়ে খুশি সমাজকর্মীর মেয়ে পবনী। তাঁর কথায়, “গত আড়াই বছর ধরে ভীমা কোরেগাঁও মামলায় কেউ সামান্যটুকু স্বস্তি পায়নি। এই মামলায় এটাই প্রথম বড় স্বস্তি। আমরা খুব খুশি। তবে মুম্বইতেই থাকতে হবে, সেই অনুযায়ী আমাদের পরবর্তী পরিকল্পনা করতে হবে।”

35