ওয়েবডেস্ক: ফাঁকা বাড়িতে একা পেয়ে এক স্কুল ছাত্রীকে ধর্ষণ করে খুনের চেষ্টার অভিযোগ উঠলো স্থানীয় এক যুবকের বিরুদ্ধে। ঘটনাটি ঘটেছে উত্তর দিনাজপুর জেলার চোপড়া থানার হপ্তিয়াগছ গ্রামে। নির্যাতিতা ছাত্রীকে চিকিৎসার জন্য উত্তরবঙ্গ মেডিক্যাল কলেজে ভর্তি করা হয়েছে। ঘটনার পর থেকে পলাতক অভিযুক্ত ওই যুবক। ঘটনার তদন্ত শুরু করেছে চোপড়া থানার পুলিশ।
ছাত্রীর পরিবার সূত্রে জানা গিয়েছে, উত্তর দিনাজপুর জেলার চোপড়া থানার হপ্তিয়াগছ গ্রামের বাসিন্দা এক পরিবারের সকলেই মঙ্গলবার স্বাস্থ্য সাথীর কার্ড করাতে গিয়েছিলেন পঞ্চায়েতে। দুপুরে বাড়িতে একাই ছিল ১৬ বছরের কিশোরী মেয়ে। বাড়ি ফাঁকা পেয়ে স্থানীয় এক যুবক চড়াও হয়ে ওই কিশোরীকে ধর্ষণ করার পাশাপাশি বিষ খাইয়ে খুনের চেষ্টা করে বলে অভিযোগ।নির্যাতিতা মেয়েটির বাবা খবর পাওয়ামাত্র তড়িঘড়ি বাড়ি ফিরে আসেন। মেয়েটির শারীরিক অবস্থা অংশকাজনক থাকায় চিকিৎসার জন্য তাকে উত্তরবঙ্গ মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে। এই ঘটনায় মেয়েটির পরিবারের তরফে চোপড়া থানায় লিখিত অভিযোগ দায়ের করা হয়েছে ওই যুবকের বিরুদ্ধে। ঘটনার পর থেকে অবশ্য পলাতক অভিযুক্ত ওই যুবক। ইসলামপুর পুলিশ জেলার পুলিশ সুপার শচীন মক্কার জানিয়েছেন, কিশোরীর বাবার অভিযোগের ভিত্তিতে পুলিশ তদন্ত শুরু করেছে। কেউ গ্রেপ্তার হয়নি

92