১৭/২/২০২১,ওয়েবডেস্কঃ

দ্বিতীয় টেস্টে কী এমন করলেন ভারত অধিনায়ক, যে এতবড় শাস্তির মুখে পড়ার সম্ভাবনা তৈরি হলো? ঘটনা হল ম্যাচের তৃতীয় দিনের। ইংল্যান্ডের দ্বিতীয় ইনিংসে অক্ষর প্যাটেলের ডেলিভারিতে অধিনায়ক জো রুটকে নট-আউট দেন আম্পায়ার নীতীন মেনন। রিভিউর সিদ্ধান্ত নেয় ভারত। কিন্তু সেখানেও অন-ফিল্ড আম্পায়ারের সিদ্ধান্তকেই মান্যতা দেওয়া হয়। এরপরই সেই সিদ্ধান্তের বিরুদ্ধে বারবার নিজের হতাশা প্রকাশ করতে থাকেন কোহলি। অন-ফিল্ড আম্পায়ারের সঙ্গে কোহলির বাক্য বিনিময়ের দৃশ্যও ক্যামেরাবন্দি হয়। সেখানেই স্পষ্ট দেখা যায়, জো রুটকে আউট না দেওয়ায় বেশ ক্ষুব্ধ কোহলি। আর এই কারণেই তাঁকে এবার শাস্তির মুখে পড়তে হতে পারে।প্রথম টেস্টে হারের পর চিপকে দ্বিতীয় টেস্টে দুর্দান্ত জয় পকেটে পুরেছে টিম ইন্ডিয়া। মোতেরায় তৃতীয় টেস্টেও জয়কেই পাখির চোখ করছে কোহলি অ্যান্ড কোং। কিন্তু তার মধ্যেই চাপা উদ্বেগ ছড়ায় ভারতীয় শিবিরে। শোনা যাচ্ছে, এক ম্যাচ নির্বাসনের মুখে পড়তে পারেন ক্যাপ্টেন কোহলি !
তবে অধিনায়কের শাস্তি হবে কি না, তা নির্ভর করছে ম্যাচ রেফারি জভগল শ্রীনাথ কোহলির আচরণ নিয়ে কী রিপোর্ট জমা দেন, তার উপর। আম্পায়ারের সঙ্গে বিরাটের ব্যবহার অখেলোয়াড়োচিত মনে হলে আইসিসির কোড অফ কনডাক্ট অনুযায়ী শাস্তি হতে পারে তাঁর। আম্পায়ারের সিদ্ধান্তে খুশি না হলে কিংবা একটি বিষয় নিয়ে অন-ফিল্ড আম্পায়ারের সঙ্গে দীর্ঘক্ষণ বিতর্কে জড়ালে আইসিসির নিয়মে তা লেভেল ১ অথবা লেভেল ২ অপরাধ হিসেবে গণ্য হয়। গত ২৪ মাসের মধ্যে কোহলির ডিমেরিট পয়েন্ট দুই। তাঁর নামের পাশে জুড়তে পারে আরও দুটি ডিমেরিট পয়েন্ট। আর সেই কারণেই ফলস্বরূপ এক ম্যাচ সাসপেন্ড করা হতে পারে তাঁকে। দ্বিতীয় টেস্টে চোট পাওয়ার কারণে দলের জয়ের দিন মাঠে নামতে পারেননি ওপেনার শুভমন গিল। আর এবার কোহলির মাথার উপর ঝুলছে সাসপেনশনের খাঁড়া। সব মিলিয়ে টেস্ট সিরিজে সমতায় ফিরেও স্বস্তি নেই ভারতীয় শিবিরে।

22