১৪/২/২০২১,

ওয়েবডেস্কঃ প্রায় ১১ মাস ধরে বন্ধ রয়েছে রায়গঞ্জের লোকাল ট্রেন চলাচল।

ছট পূজার সময় ৭ দিনের জন্য ট্রেন চলাচল শুরু হলেও তা আবার বন্ধ হয়ে যায়। যে কারণে সমস্যায় পড়েছেন ক্ষুদ্র ব্যবসায়ী থেকে শুরু করে সাধারণ মানুষ।

বহুবার রায়গঞ্জের বিভিন্ন সংগঠনের পক্ষ থেকে রেল কর্তৃপক্ষের কাছে বিহারে যাতায়াতের লোকাল ও পাসেঞ্জার ট্রেন চালুর আবেদন জানানোর পরেও চালু হয় নি ট্রেন পরিষেবা। তাতেই মাথায় হাত রায়গঞ্জের কুমোরটুলী, কাঞ্চনপল্লীর মৃৎশিল্পীদের।

রায়গঞ্জের মৃৎশিল্পীদের হাতে তৈরী করা প্রায় ৯০ শতাংশ সরস্বতী প্রতীমা বিক্রি হয় প্রতিবেশী রাজ্য বিহারে। স্বভাবতই ট্রেন বন্ধ থাকায় সেই প্রতিমাগুলি পাঠাতে চরম বিপাকে পড়েছেন মৃৎশিল্পীরা।

ক্ষতির সম্মুখীন হচ্ছে প্রায় লক্ষাধিক টাকা সেই কারণেই মাথায় হাত প্রতিটি মৃৎশিল্পীর। শিল্পীরা জানিয়েছেন ট্রেন চালু না হওয়ায় বেশিরভাগ মূর্তিই অবিক্রীত থেকে যাবে। করোনার কারণে এবং পরে ট্রেন বন্ধ থাকায় এই সকল ক্ষতির সম্মুখীন হতে হচ্ছে, এবং তাতে তাদের প্রতিনিয়ত পড়তে হচ্চে নানান সমস্যায়।

রায়গঞ্জ পৌরসভার উপ পৌরপতি অরিন্দম সরকার এবিষয়ে বলেন, কলকাতার বুকে ট্রেন ও মেট্রো গুলো চালু হলেও কেন রায়গঞ্জের মতো ছোট শহরে লোকাল ট্রেন গুলো বন্ধ থাকছে তা নিয়ে তিনি চিন্তিত। তিনি আরও বলেন ট্রেন মূলত কেন্দ্রের বিষয় সেখানে যদি রাজ্য কে অনুমতি দেয়া হয় তবে রাজ্য নিশ্চয়ই এই বিষয় তাদের সামনে তুলে ধরবেন।

61