ওয়েবডেস্কঃ কোচবিহারের পরিবর্তন রথযাত্রার সূচনা সভা থেকে মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়কে ‘জয় শ্রী রাম’ চ্যালেঞ্জ ছুঁড়লেন অমিত শাহ । কেন্দ্রীয় স্বরাষ্ট্রমন্ত্রীর সাফ ও স্পষ্ট হুঙ্কার, ‘ভোটের পর মমতাই জয় শ্রী রাম বলবেন।’

এদিন কোচবিহারে পৌঁছে প্রথমে মদনমোহন মন্দিরে পুজো দিতে যান অমিত শাহ । তারপর সেখান থেকে রাসমেলা ময়দানের কাছে পঞ্চানন বর্মার মূর্তি মাল্যদান করে যোগ দেন জনসভায়। সভা থেকেই ‘জয় শ্রী রাম’ স্লোগান ইস্যুতে তৃণমূল নেত্রীকে একের পর এক চাঁচাছোলা প্রশ্নে বিদ্ধ করলেন শাহ। চ্যালেঞ্জ ছুড়লেন। কটাক্ষ করলেন, তোপ দাগলেন।

বলেন, “জয় শ্রী রাম এখানে বলবে না তো কি পাকিস্তানে বলবে? জয় শ্রী রাম-এ কেন অপমান লাগে আপনার? গোটা দেশ যেখানে জয় শ্রী রাম  বলতে গর্ব বোধ করে, সেখানে জয় শ্রী রাম শুনলে মমতা দিদির অস্বস্তি বোধ হয়। একটা বিশেষ সম্প্রদায়কে খুশি করতেই আপনার অপমান লাগে। তাই রাম নামে আপত্তি মমতা দিদির । তাঁদের তোষণ করে ভোট পেতে চান। কেন অন্য সম্প্রদায়ের মানুষরা কি ভোটার নন? তবে ভোটের পর মমতা দিদিও জয় শ্রী রাম বলবেন।” ভাষণের শেষে সমবেত জনতাকে নিয়ে ‘জয় শ্রী রাম’ গর্জন তুলতেও এদিন দেখা গেল শাহকে ।

প্রসঙ্গত, নেতাজির ১২৫ তম জন্মজয়ন্তীতে ভিক্টোরিয়া মেমরিয়ালের অনুষ্ঠানে মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় বক্তব্য রাখতে উঠলে ‘জয় শ্রী রাম’ স্লোগান দেন বিজেপি কর্মী সমর্থকরা। প্রধানমন্ত্রী মোদীর উপস্থিতিতে এই স্লোগান ঘিরে শুরু হয় রাজনৈতিক তরজা। মঞ্চ থেকে নীরব প্রতিবাদে ‘সরব’ হন মমতা। কোনও বক্তব্য না রেখেই ফিরে আসেন সেদিন। 

33