Categories
দেশের খবর

বেসরকারীকরনের প্রতিবাদে আবার ধর্মঘট ব্যাঙ্কে, মার্চ মাসে ব্যাঙ্ক বন্ধ টানা ৪ দিন!

ওয়েবডেস্কঃ একের পর এক সরকারি সংস্থার বেসরকারীকরণের পথে হাঁটছে কেন্দ্র। এবার ব্যাঙ্কেরও বেসরকারীকরণ করার প্রস্তাবও দিয়েছে মোদি সরকার। তাদের সেই সিদ্ধান্তের প্রতিবাদে পথে নামছেন ব্যাঙ্কের কর্মচারীরা। প্রতিবাদ কর্মসূচির অঙ্গ হিসেবে মার্চ মাসে পরপর দু’দিন ব্যাংক ধর্মঘটের ডাক দিল কর্মচারী ইউনিয়ন অল ইন্ডিয়া ব্যাঙ্ক এমপ্লয়িজ অ্যাসোসিয়েশন। এই ধর্মঘট হলে মার্চ মাসে টানা চারদিন ব্যাঙ্ক বন্ধ থাকবে। যার জেরে ব্যাপক সমস্যায় পড়তে পারেন গ্রাহকরা। বিপর্যস্ত হতে পারে এটিএম পরিষেবাও।

এবার সাধারণ বাজেটে ব্যাঙ্কের বেসরকারীকরণের প্রস্তাব দিয়েছে কেন্দ্রীয় সরকার। এলআইসির শেয়ার খোলা বাজারে বিক্রির পাশাপাশি দুটি ব্যাঙ্কের বেসরকারীকরণ করা হবে বলে জানিয়েছেন কেন্দ্রীয় অর্থমন্ত্রী নির্মলা সীতারমণ। এর পর থেকেই সর্বস্তরে শুরু হয়েছে প্রতিবাদ ।

কেন্দ্রের এই প্রস্তাবের প্রতিবাদে এবার সরব ব্যাঙ্কের কর্মচারীরাও। প্রতিবাদ কর্মসূচি হিসেবে ১৫ ও ১৬ মার্চ গোটা দেশে ব্যাঙ্ক বন্ধ রাখার সিদ্ধান্ত নিয়েছেন তাঁরা। এর ফলে বেজায় বিপাকে পড়তে চলেছেন সাধারণ গ্রাহকরা। কারণ তার আগে ১৩ ও ১৪ তারিখও ব্যাঙ্ক বন্ধ থাকবে ।

মার্চ মাসের দ্বিতীয় শনিবার অতএব ১৩ তারিখ, স্বাভাবিকভাবেই সেদিন বন্ধ থাকবে ব্যাঙ্ক। ১৪ তারিথ রবিবার। এর পর সপ্তাহের শুরুতেই দুদিন ব্যাঙ্ক বন্ধ রাখার ডাক দেওয়া হয়েছে। এর ফলে ব্যাহত হতে পারে এটিএম পরিষেবাও। অল ইন্ডিয়া ব্যাঙ্ক এমপ্লয়িজ অ্যাসোসিয়েশন (এআইবিইএ)-এর সভাপতি রাজেন নাগার বলেন, “ব্যাঙ্কগুলির বেসরকারীকরণের উদ্যোগের প্রতিবাদে এই ধর্মঘট। আন্দোলন আরও জোরালো হতে পারে।” উল্লেখ্য, মার্চ মাসে হোলি উৎসবের জন্যও বন্ধ থাকবে ব্যাঙ্ক।

উল্লে্খ্য, এই বিলগ্নিকরণ নীতি নিয়ে কেন্দ্রকে তীব্র আক্রমণ করেছেন কংগ্রেস নেতা রাহুল গান্ধীও। টুইটে বিজেপিকে কেন্দ্র করে রাহুলের কটাক্ষ, “মোদি সরকারের উন্নয়নের অর্থ সরকারি সংস্থাকে বিক্রি করে দেওয়া। এতে দেশের ক্ষতি হলেও, কিছু মানুষের লাভ হবে।”

84

Leave a Reply