অভিষেক টেস্টেই অপরাজিত দ্বিশতরান। উপমহাদেশের পিচে প্রায় চারশোর কাছাকাছি রান তাড়া করে দলকে জেতানো। রবিবারের পর থেকে কাইল মায়ার্স নামটা হঠাৎই পরিচিত হয়ে উঠেছে ক্রিকেটবিশ্বে। ওয়েস্ট ইন্ডিজের এই নতুন তারকাকে নিয়ে গোটা বিশ্বের কৌতুহলও বৃদ্ধি পাচ্ছে। কে এই কাইল মায়ার্স?

প্রথম শ্রেণির ক্রিকেটে সফল তিনি। দাপিয়ে খেলেছেন ক্যারিবিয়ান প্রিমিয়ার লিগেও (সিপিএল)। কিন্তু তিন বছর আগে প্রবল ঝড়ের মধ্যে পড়ে জীবনই যেতে বসেছিল এই ক্যারিবিয়ান ক্রিকেটারের। উইন্ডওয়ার্ড আইল্যান্ডের হয়ে ডোমিনিকায় প্রস্তুতি শিবিরে গিয়েছিলেন মায়ার্স। এমন সময় আটকে পড়েন হারিকেন মারিয়ায়। যে বাড়িতে ছিলেন তার ছাদ উড়ে গিয়েছিল। পরের দিন জল এবং খাবার খুঁজতে ব্যস্ত ছিলেন। কারওর সঙ্গে যোগাযোগ করতে পারছিলেন না। শেষে তাঁকে উদ্ধার করেন দলের কর্তা এবং স্থানীয় পুলিশরা।

মায়ার্সকে নিয়ে বলতে গিয়ে কার্লোস ব্রাথওয়েট বলেছেন, “ডোমিনিকায় মায়ার্সের আটকে পড়ার খবর শুনে বার্বাডোজে আতঙ্ক তৈরি হয়েছিল। ফোনের লাইন ভেঙে পড়ায় ওর সঙ্গে যোগাযোগ করা যাচ্ছিল না। সবাই খারাপ খবরই ভাবছিল। ওই ঘটনার পরেই ও বার্বাডোজে ফিরে আসে।”

ব্রাথওয়েট আরও বলেছেন, “যে ভাবে কষ্ট করে ও উঠে এসেছে তা আমরা সবাই জানি। প্রচুর পরিশ্রম করেছে। যা পেয়েছে তার যোগ্য ও। আশা করি ভবিষ্যতে আরও ভাল খেলবে।

25