থামানো যাচ্ছে না মোদী ঘনিষ্ঠ বলিউড অভিনেত্রী কঙ্গনা রানাওয়াত কে। ট্যুইটারে বিভিন্নরকম বিতর্কিত মন্তব্য করে সব সময় তিনি নিজেকে ফোকাসে রাখতে ভালোবাসেন। এবার যেন শালীনতার সব মাত্রা ছাড়িয়ে গেলেন তিনি।ভারতীয় ক্রিকেট নক্ষত্র রোহিত শর্মার এক নিরীহ ট্যুইটে তিনি যেভাবে স্বভাব সিদ্ধ ভঙ্গিতে রিঅ্যাক্ট করেছেন তাতে নিন্দার ঝড় উঠেছে বিভিন্ন মহলে।

জামাইকান পপস্টার রিহানার করা কৃষক আন্দোলনের প্রেক্ষিতে এক ট্যুইট কে ঘিরে ভারতের শাসক ঘনিষ্ঠ সেলিব্রেটিদের এক অংশ #IndiaStandsTogether হ্যাশট্যাগ দেওয়া ট্যুইট ক্যাম্পেইনে অংশ নেন। তাতে অজয় দেবগান, অক্ষয় কুমার, শচীন তেন্ডুলকর, সৌরভ গঙ্গোপাধ্যায়, লতা মঙ্গেশকার থেকে বিরাট কোহলি অনেকেই ট্যুইট করেছেন। রোহিত শর্মাও এই হ্যাশট্যাগ দিয়ে ট্যুইট করে এটা ভারতের আভ্যন্তরীণ বিষয় উল্লেখ করে সমস্যা সমাধানে সবাইকে ঐক্যবদ্ধ থাকার আহ্বান জানানোর পাশাপাশি কতিনি কৃষকদেরও পাশে থাকার কথা বলেছেন। তিনি লিখেছেন কৃষকরাও আমাদের দেশের হিতের জন্য গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা পালন করে তাই সবার উচিত এই সমস্যা থেকে বেরিয়ে আসার জন্য নিজ নিজ দায়িত্ব পালন করা। আর এতেই গোসা হয়ে যায় কঙ্গনার। তিনি পাল্টা ট্যুইট করে লেখেন, ‘এই ক্রিকেটারগুলো মাঝে মাঝে ধোবি কা কুত্তা না ঘর কা না ঘাট কা এর মত আচরণ করে। আন্দোলনকারী কৃষকদের ‘রেভিলিউশনারি’, ও আইন ভঙ্গকারী উগ্র পন্থী হিসেবে উল্লেখ করে তাদের পাশে দাঁড়ানোর কথা বলার জন্য রোহিতের প্রতি ক্ষোভ উগরে দেন।

যদিও ট্যুইটার কর্ত্তীপক্ষ এই ট্যুইট টি পরে সরিয়ে দিয়েছে। রোহিত শর্মা এবং অন্যান্য ক্রিকেটারদের উপর আক্রমণ করার পরে, টুইটার কঙ্গনা রানাউতের টুইট মুছে দিয়ে জানিয়েছে যে “এটি আমাদের প্রয়োগের বিকল্পের সীমানার সাথে টুইটারের বিধি লঙ্ঘন করেছে।

20