৩/২/২০২১,ওয়েবডেস্কঃ

তিস্তা প্রকল্পে ক্ষতিপূরণ বাবদ চাকরী না পেয়ে বুধবার ফের ইসলামপুরে অনশন অবস্থান বিক্ষোভে সামিল জমিহারারা। বাম আমলে তিস্তা প্রকল্পে জমি দিয়েছিল উত্তর দিনাজপুরের কৃষকরা। পরিবার পিছু একজনের চাকরীর প্রতিশ্রুতি দিয়েছিল তৎকালীন রাজ্য সরকার। রাজ্য সরকারের পক্ষ থেকে ল্যান্ড লুজারের প্রমাণপত্রও দেওয়া হয়েছিল জমিহারাদের। কিন্তু দীর্ঘ এক দশক ধরে বিভিন্ন দপ্তরে ঘোরাঘুরি করেও ভূমিহারাদের হাতে মৌখিক প্রতিশ্রুতি ছাড়া আর কিছুই মেলেনি। সম্প্রতি বাধ্য হয়েই ইসলামপুরের তিস্তা প্রকল্পের একজিকিউটিভ ইঞ্জিনিয়ারের দপ্তরের সামনে অবস্থান বিক্ষোভে বসে ভূমিহারারা। দপ্তরের গেটে তালা ঝুলিয়েও দিয়েছিল বিক্ষোভকারীরা। তাতেও কোনও সুরাহা না হওয়ায় এদিন ফের অনশন অবস্থানে বসল তিস্তায় জমিহারারা। প্রতিবারের ন্যায় এদিনও ইসলামপুরের তিস্তা প্রকল্পের এগজিকিউটিভ ইঞ্জিনিয়ার অনুপস্থিত। ভূমিহারাদের দাবী, ইসলামপুর তিস্তা প্রকল্পের দপ্তরে ১২০টি পদ শূন্য রয়েছে। আন্দোলনরত ১১৫ জনকে সেই পদে নিয়োগ করতে হবে। লিখিত প্রতিশ্রুতি না পাওয়া পর্যন্ত ভূমিহারারা আন্দোলন থেকে সড়বেন না বলে হুমকি দিয়েছে। সবমিলিয়ে একুশের বিধানসভা নির্বাচনের প্রাক্কালে ভূমিহারাদের আন্দোলনে তিস্তা প্রকল্পের পাশাপাশি রাজ্য সরকারও অস্বস্তিতে পড়তে চলেছে বলে মত ওয়াকিবহাল মহলের।

30