Categories
দেশের খবর

কৃষক বিক্ষোভে উত্তাল দিল্লি: মুখ বাঁচাতে ময়দানে অমিত শাহ

২৭/১/২০২১,ওয়েবডেস্কঃ

ওয়েব ডেস্ক জানুয়ারি ২৭,২০২১: আজ ৭২ তম সাধারণতন্ত্র দিবসে দুপুরে বিক্ষোভরত কৃষকদের এক অংশ লালকেল্লার দখল নিতেই প্রশাসনের শীর্ষস্তরে কার্যত দিশেহারা হয়ে পড়ে। আজ সাধারণতন্ত্র দিবস উপলক্ষে ট্রাক্টর মার্চের কর্মসূচি ছিল বিক্ষোভরত কৃষকদের। ট্রাক্টর প্যারেড চলাকালীন বিক্ষোভরত কৃষকদের একাংশ লালকেল্লা চত্বরে ঢুকে যান এবং জাতীয় পতাকার নীচে নিজেদের সংগঠনের পতাকা উত্তোলন করেন। এর ফলে বিশৃঙ্খলার সৃষ্টি হয়। বিকেলের দিকে তড়িঘড়ি নিরাপত্তা সংক্রান্ত আধিকারিকদের নিয়ে বৈঠকে বসেন খোদ স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী। বৈঠকে উপস্থিত ছিলেন স্বরাষ্ট্র সচিব অজয় কুমার ভাল্লা, দিল্লির পুলিশ কমিশনার এস এন শ্রীনিবাস এবং আইবি প্রধানের মতো আধিকারিকরা। শীর্ষ আধিকারিকদের বৈঠক প্রায় ঘণ্টা দেড়েক চলে।
বৈঠক চলাকালীনই কৃষকরা লালকেল্লা চত্বর খালি করে দিয়ে নিজেদের বিক্ষোভস্থলে ফিরে যাওয়া শুরু করেন। তাঁদের সাফ কথা, ‘আমরা যে বার্তা দিতে চেয়েছিলাম, সেটা দেওয়া হয়ে গিয়েছে। ‘ কৃষকরা লালকেল্লা ফাঁকা করার পরও অবশ্য প্রশাসন বসে থাকেনি। সাময়িকভাবে বন্ধ রাখা হয়েছিল মেট্রো পরিষেবা। সিঙ্ঘু, গাজিপুর, টিকরি, মুকারবা চক, নাঙ্গলোইয়ের মতো এলাকায় বন্ধ করে দেওয়া হয় ইন্টারনেট পরিষেবাও। এদিকে শীর্ষ আধিকারিকদের সঙ্গে বৈঠকেই স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী রাজধানীর আইনশৃঙ্খলা পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আনার নির্দেশ দেন বলে সূত্রের খবর। প্রয়োজনে আধাসেনা মোতায়েনেরও নির্দেশ দিয়েছেন তিনি। সংবাদ সংস্থা ANI সূত্রের খবর, রাজধানীতে ১৫ কোম্পানি অতিরিক্ত আধাসেনা মোতায়েন করা হতে পারে। এবং তা মূলত যে যে এলাকা দিয়ে কৃষকরা রাজধানীতে প্রবেশ করেছেন, সেই সেই এলাকাগুলিতে মোতায়েন করার পরিকল্পনা করা হয়েছে। এছাড়াও, সংবেদনশীল এলাকাগুলিতে পুলিশ এবং আধাসেনার রুটমার্চেরও নির্দেশ দেওয়া হয়েছে।
এদিকে বিক্ষোভ চলাকালীন এক কৃষক মারা যান। বিবিসি নিউজ সূত্রের খবর অনুযায়ী ট্রাক্টর প্যারেডের সময় পুলিশ টিয়ার গ্যাস চার্জ করলে ট্রাক্টর উল্টে ঐ কৃষকের মৃত্যু হয়েছে বলে জানা গিয়েছে।

63

Leave a Reply