ওয়েবডেস্কঃ ‘ জমির পরিবর্তে চাকরী ‘ প্রতিশ্রুতিই সার, এখনও সরকারি চাকরি পাননি বহু জমি দাতা।সোমবার শিলিগুড়িতে তিস্তা সেচ দপ্তরের কর্যালয় ঘেরাও করে বিক্ষোভে শামিল হলেন জলপাইগুড়ি ল্যাণ্ড লুজার কমিটির সদস্যরা। তাদের দাবি প্রতিশ্রতি মোতাবেক চাকরি দিতে হবে জমি দাতাদের । দাবি না মানলে ভোট বয়কট করবেন বলে জানিয়েছেন।জলপাইগুড়ি ল্যান্ড লুজার কমিটির সদস্যরা জানিয়েছেন, বিভন্ন সরকারি প্রকল্পের জন্য বাম আমলে জমি দান করেছিলেন এবং পরিবর্তে চাকরি দেয়া হবে বলে প্রতিশ্রুতি দেওয়া হয়েছিল। বাম আমলে প্রতিশ্রুতির বাস্তব প্রতিফলন দেখা গেলেও সরকার বদলের পরে তা স্বপ্ন হয়েই রয়ে গেছে।অন্যদিকে, ২০১৯ সালে উত্তরকন্যায় এ সংক্রান্ত একটি বৈঠকও হয়েছিল বলে খবর। তবে, কোন সমাধান সূত্র মেলেনি আজও।জলপাইগুড়ি ল্যাণ্ড লুজার কমিটির সভাপতি নজরুল রহমান বলেন, ‘২০০৪ সালের পর থেকে বিভিন্ন প্রকল্পের জন্য জমি নিয়েছিল তিস্তা সেচ দপ্তর। আমাদের বলা হয়েছিল যোগ্যতা অনুসারে চাকরি দেওয়া হবে। যদিও ৬০০ পরিবার এখনও প্রতিশ্রুতি মোতাবেক চাকরি পায়নি। সেই দাবিতেই আমরা বিক্ষোভে বসেছি। দাবি না আদায় হওয়া অবধি আন্দোলন চালিয়ে যাব। প্রয়োজনে আমরা ভোট বয়কট করব।’এবিষয়ে তিস্তা সেচ দপ্তরের আধিকারিকেরা ছিলেন নিশ্চুপ।

29