Categories
কুলিক রোববার

কুলিক রোববার: কবিতা: পুণ্যপীঠের খুব কাছে 

পার্থপ্রতিম বিশ্বাস

কাকে দিয়ে যাবো এই উত্তরাধিকার, বিকেলের 

পুঞ্জীভূত রাধিকা বিরহ।তুমি আজ গিরিতল প্রান্তের

মতো ভূমিকাবিহীন কোরক উত্তাপ বহুদূর থেকে 

ভেসে আসে হেমন্তকালীন শ্রবণ ধ্বনি, বালিকার ঈর্ষাহীন 

প্রাঙ্গণ। আমি পাথর সরিয়ে সরিয়ে দেখি সুদূর

 জলকথার স্তব্ধ বার্তা। সহমরণের সেই শুরু

 কুয়াশাঘেরা আড়াল আমাকে নিয়ে যায় একেবারে

খাদের কিনারে। সমূহ অন্ধকারে বেজে ওঠে

দ্বিধাহীন সঞ্চয়। পুরাকালের অস্থির কলঙ্ক শেষ করে

বিকেলের শোভা দেখি, শ্বাস নিতে নিতে হারিয়ে ফেলি

তোমার সমস্ত ইঙ্গিত, আস্তে আস্তে কে যেন পাথরের মতো

ঠেলে নিয়ে যায় অমোঘ উপকূলের দিকে। পুণ্যপীঠের

খুব কাছে তৈরি হয় বাসনার আঁচ। আজ যখন বহু

জীবন শেষ প্রত্যাশিত শিখায় ঠিক তখনই রাতের শাসনে

নৌকো ভাসিয়ে দেয় রহস্য জলপথ, তবুও অপলক নির্জন খুঁজি

আর কতদূরে আন্দোলিত চন্দনচিহ্ন, মুগ্ধ বালকের

শ্রাবণ গন্ধে শব্দহীনতার সঞ্চারীর রাধারানী

56

Leave a Reply