Categories
আশেপাশের খবর

‘স্বাস্থ্যসাথী’ কার্ড থাকা সত্ত্বেও আশঙ্কাজনক রোগীকে ফিরিয়ে দিল রায়গঞ্জের তৃণমূল নেতার হাসপাতাল:

মুখ্যমন্ত্রীর স্বপ্নের সাস্থ্য সাথী প্রকল্প সারা জাগিয়েছে রাজ্য জুড়ে। দুয়ারে সরকার প্রকল্পে সব চেয়ে বেশি ভিড় দেখা যাচ্ছে স্বাস্থ্য সাথী প্রকল্পে নাম অন্তর্ভুক্তিকরনে।কিন্তু বারবার অভিযোগ আসছে স্বাস্থ্যসাথী কার্ড থাকা সত্ত্বেও বেসরকারি হাসপাতাল গুলিতে চিকিৎসা সুবিধা মিলছে না গ্রাহকদের। এবার খোদ তৃণমূল নেতার হাসপাতালের বিরুদ্ধে অভিযোগ উঠেছে স্বাস্থ্য সাথী কার্ড হোল্ডার কে পরিষেবা না দিয়ে আশঙ্কাজনক অবস্থায় ফিরিয়ে দেওয়ার।

রায়গঞ্জ পৌরসভার ৭নং ওয়ার্ডের শক্তিনগরের বাসিন্দা পেশায় রঙ মিস্ত্রি রঞ্জিত মাহাতো কাজ করতে গিয়ে উঁচু থেকে পরে গিয়ে পা ভেঙ্গে যায়। পা’য়ের হাড় ভেঙে কয়েক টুকরো হয়ে যায়। উত্তর দিনাজপুর জেলা পরিষদের কর্মাধ্যক্ষ পূর্ণেন্দু দে’র মালিকানাধীন রায়গঞ্জের উপসম হাসপাতালে ভর্তি করা হয়। স্বাস্থ্যসাথী কার্ড হোল্ডার হওয়ায় সরকারি ঘোষণা মত এই হাসপাতালে পাঁচ লক্ষ টাকা পর্যন্ত চিকিৎসা পরিষেবা পাওয়ার কথা তার। সেইমত অপারেশনের জন্য হাসপাতালে ভর্তি করা হলেও অপারেশনের জন্য নগদ টাকা না দিলে অপারেশন করা সম্ভব নয় বলে জানিয়ে দেওয়া হয়। ফলে তাকে আশঙ্কাজনক অবস্থাতেই বাড়ি ফিরে যেতে হয়। প্রসঙ্গত এর আগেও শুধু রায়গঞ্জেই এরকম বেশ কয়েকটি অভিযোগ পাওয়া গিয়েছে। হাসপাতাল কর্তৃপক্ষ জানিয়েছে তাদের হাসপাতাল স্বাস্থ্যসাথীর অন্তর্ভুক্ত হলেও তারা সবে সফটওয়্যার আপলোড করলেও তারা এখনও পরিষেবা দেওয়া শুরু করতে পারে নি।

123

Leave a Reply