১৭/১/২০২১,ওয়েবডেস্কঃ

গতকাল সারা দেশের পাশাপাশি পশ্চিমবঙ্গেও হয়েছে করোনার বিরুদ্ধে টিকাকরণ। তবে প্রথম দিনই এড়ানো গেলোনা অঘটন। এদিন টিকা নিয়ে অসুস্থ হয়ে পড়েন বি সি রায় হাসপাতালের একজন নার্স।

৩৬ বছর বয়সী ওই নার্সকে দ্রুত কলকাতা এনআরএস হাসপাতালে ভর্তি করা হয়।বর্তমানে সিসিইউ-তে তাঁর চিকিৎসা চলছে।

শনিবার প্রায় ২০,৭০০ প্রথমসারির করোনা যোদ্ধাকে টিকা দেওয়ার পরিকল্পনা করা হয়েছিল। স্বাস্থ্য দফতরের প্রাথমিক রিপোর্ট অনুযায়ী, রাজ্যের ২০৭ টি কেন্দ্রে ১৫,৭০৭ জন টিকা নিয়েছেন। কলকাতায় টিকা নিয়েছেন প্রায় ৯২ শতাংশ। প্রতিটি কেন্দ্রের ১০০ জনকে টিকা দেওয়ার কথা ছিল। কিন্তু সূত্রের খবর, সব কেন্দ্রে ১০০ জন করে আসেননি। কোথাও ৭০ জনের মতো প্রথমসারির করোনা যোদ্ধা এসেছিলেন। যাঁরা আসেননি, তাঁদের অনেকের সঙ্গে কথাও বলা হয়েছে। বাকিরা কেন আসেননি, তা খতিয়ে দেখা হচ্ছে বলে স্বাস্থ্য দফতর সূত্রে খবর।

এরইমধ্যে টিকা নেওয়ার পর কমপক্ষে ১৪ জনের মৃদু পার্শ্বপ্রতিক্রিয়া (টিকাকরণের পর বিরূপ প্রতিক্রিয়া) দেখা দিয়েছে।

অন্যদিকে স্বাস্থ্য দফতর সূত্রে খবর, টিকা নেওয়ার কলকাতার ফুলবাগানের বিধানচন্দ্র রায় শিশু হাসপাতালের এক নার্স সংজ্ঞা হারিয়ে ফেলেন। দ্রুত স্বাস্থ্য কর্তাদের সঙ্গে যোগাযোগ করে হাসপাতাল কর্তৃপক্ষ। স্বাস্থ্য দফতরের তরফে নীলরতন সরকার মেডিক্যাল কলেজ এবং হাসপাতালের কথা বলে বছর ২৫-এর ওই নার্সকে সেখানেই ভরতি করা হয়। ক্রিটিকাল কেয়ার ইউনিটে স্থানান্তরিত করে তাঁকে পর্যবেক্ষণে রাখা হয়েছে বলে খবর। আপাতত তাঁর শারীরিক অবস্থা স্থিতিশীল আছে।

তাহলে কি এখনও অনেকের মধ্যে করোনা ভ্যাকসিনের কার্যকারিতা নিয়ে প্রশ্ন রয়েছে?

ভ্যাকসিনের কার্যকারিতা নিয়ে ভিন্নমত রয়েছে চিকিৎসকদের মধ্যেও।চিকিৎসক মানস গুমটার বক্তব্য, ভ্যাকসিন নিয়ে রাজনীতি হচ্ছে, বিজ্ঞানীরা যে পর্যায়ে ট্রায়াল করছিলেন, সম্পূর্ণ হওয়ার আগেই ভ্যাকসিন দেওয়া শুরু হওয়ায় ধন্দ তৈরি হয়েছে।

111