Categories
দেশের খবর

দেশের কনিষ্ঠতম মেয়র হচ্ছেন কেরলের ২১ বছরের আরিয়া রাজেন্দ্রন

দেশের কনিষ্ঠতম মেয়র হিসেবে নির্বাচিত হতে চলেছেন বছর একুশের কলেজ পড়ুয়া আরিয়া রাজেন্দ্রন। তাঁকে তিরুঅনন্তপুরমের মেয়র হিসেবে মনোনীত করার প্রক্রিয়া চলছে।

সম্প্রতি কেরলে স্থানীয় প্রশাসনের নির্বাচন হয়েছে। মুরাভানমুগলে পুরনিগম নির্বাচনে সিপিএম –এর টিকিটে দাঁড়িয়েছিলেন আরিয়া। ইউডিএফ প্রার্থী শ্রীকলাকে ২৮৭২ ভোটে হারিয়ে কাউন্সিলর হয়েছেন তিনি। নতুন দায়িত্ব প্রসঙ্গে আরিয়া বলেন, “আমি বর্তমানে এক জন কাউন্সিলর। দল যদি আমাকে মেয়রের দায়িত্ব দেয়, তা গ্রহণ করব।”

সূত্রের খবর, জামিলা শ্রীধরনকে প্রথমে মেয়র হিসেবে নিয়োগের চিন্তাভাবনা করেছিল সিপিএম নেতৃত্বাধীন এলডিএফ। কিন্তু দলের সদস্যরা নতুন কোনও মুখ এবং তরুণ প্রজন্মের কাউকে এই পদে নিয়োগ করার দাবি তোলেন। তার পরই আরিয়ার নাম উঠে আসে।

তিরুঅনন্তপুরমের অল সেন্ট’স কলেজের অঙ্ক স্নাতকের দ্বিতীয় বর্ষের ছাত্রী আর্যা৷ পুরোদমে বামপন্থী রাজনীতির সঙ্গে তিনি যুক্ত৷ এসএফআইয়ের কেরল রাজ্য কমিটির সদস্য হওয়ার পাশাপাশি আর্যা সিপিএমের শাখা সংগঠন বালাসংঘমেরও প্রেসিডেন্ট৷ আর্যা নির্বাচনের আগে জানিয়েছিলেন যে, ভোটে জিতলে তিনি প্রাইমারি স্কুলগুলির উন্নয়নের পাশাপাশি অনান্য উন্নয়নমূলক কাজও চালিয়ে যাবেন৷

এ বছরে স্থানীয় প্রশাসনের ভোটে তরুণ প্রজন্মের বহু প্রার্থী দিয়েছিল এলডিএফ। ভাল ফল করেছেন অনেকেই। আসন্ন বিধানসভা নির্বাচনে আরও বেশি করে নতুন প্রজন্মকে দলে টানতে চাইছে এলডিএফ। দলে আরও নতুন প্রজন্ম আসবে বলে আশা প্রকাশ করেছেন খোদ মুখ্যমন্ত্রী পিনারাই বিজয়নও। কলেজ রাজনীতিতে যথেষ্ট সক্রিয় আরিয়া। এসএফআই-এর রাজ্য কমিটির সদস্য। বর্তমানে সিপিএমের শিশু শাখা বালসঙ্ঘম-এর সভাপতি তিনি।

নির্বাচন জেতার পর আর্যা বলছেন তাঁর দল তাঁকে ঠিক যে ভূমিকা দেবে তিনি সেই ভূমিকা নিতেই প্রস্তুত আছেন৷ পাশাপাশি এও বলেছেন যে, রাজনীতি ও পড়াশোনা একই সঙ্গে চালিয়ে যাবেন তিনি৷

66

Leave a Reply