Categories
অন্য খবর

অরুন জেটলির মূর্তি বসানোর প্রতিবাদে পদত্যাগ করলেন পৃথিবী বিখ্যাত ক্রিকেটার

২৪/১২/২০২০,ওয়েবডেস্কঃ

এমনটা প্রায় দেখাই যায় না যে, কোন প্রথিতযশা খেলোয়াড় কোন রাজনৈতিক নেতা মন্ত্রীর বিরুদ্ধে নিজের ক্ষোভ এত দৃঢ়তার সঙ্গে প্রকাশ করছেন।বরং উল্টোটাই ঘটে। নেতা মন্ত্রীদের মানিয়ে গুছিয়ে নিজের চলতেই পছন্দ করেন বেশিরভাগ খেলোয়াড়।তাই এধরনের ঘটনা ব্যতিক্রমী। তবে একজন ব্যতিক্রমী মানুষই পারে এমন ব্যতিক্রমী কাজ করতে। নিজের খেলোয়াড় জীবনে স্পিনের ঘূর্ণিতে খেল খতম করে দিয়েছেন বহু ব্যাটসম্যানের। আজ ২২গজ থেকে দূরে সরে গেলেও মেজাজটাই যে আসল সেটা আবার বোঝাতে দেরী করলেন না প্রবাদপ্রতিম ক্রিকেটার বিষেণ সিং বেদি।

ঘটনার কারণ, দিল্লির ফিরোজ শাহ কোটলা স্টেডিয়ামে প্রয়াত কেন্দ্রীয় মন্ত্রী অরুন জেটলির মূর্তি বসানোর সিদ্ধান্ত। দিল্লি ডিস্ট্রিক্ট ক্রিকেট অ্যাসোসিয়েশন (ডিডিসিএ) এই সিদ্ধান্ত নিয়েছে।ডিডিসিএ-র প্রাক্তন সভাপতি ছিলেন অরুন জেটলি। কিছুদিন আগে তিনি প্রয়াত হওয়ার পর ডিডিসিএ-র সভাপতি পদে বসেন তাঁরই পুত্র রোহন জেটলি। রোহন জেটলির সভাপতিত্বে ডিডিসিএ ফিরোজ শাহ কোটলা স্টেডিয়ামে অরুন জেটলির একটি মূর্তি বসানোর সিদ্ধান্ত নেয়। অবশ্য ইতিপূর্বেই ফিরোজ শাহ কোটলার নাম পরিবর্তন করে তা অরুন জেটলির নামে করার সিদ্ধান্ত নেয় যা নিয়ে নিন্দার ঝড় উঠেছে সর্বত্র। এখন আবার অরুন জেটলির মূর্তি বসানোর সিদ্ধান্ত নেওয়ার প্রতিবাদে বিশ্বের অন্যতম সেরা স্পিনার তথা ভারতীয় ক্রিকেট দলের প্রাক্তন ক্রিকেটার বিষেণ সিং বেদি ডিডিসিএ-র সভাপতি ও অরুন জেটলির ছেলে রোহন জেটলিকে একটি দীর্ঘ চিঠি লিখেছেন।

চিঠিতে তিনি অরুন জেটলির মূর্তি বসানোর প্রতিবাদে ফিরোজ শাহ কোটলা স্টেডিয়ামে তাঁর নামাঙ্কিত দর্শকাসন থেকে তাঁর নাম প্রত্যাহার করার অনুরোধ করেছেন। সেই সঙ্গে ডিডিসিএ-র সাধারণ সদস্য পদ থেকেও অব্যাহতি চেয়েছেন তিনি।

চিঠিতে বেদি লিখেছেন,”মাননীয় সভাপতি,অত্যন্ত দ্রুততার সাথে দর্শকাসন থেকে আমার নাম প্রত্যাহার করার অনুরোধ করছিIএবং আমার ডিডিসিএ-র সদস্য পদও পরিত্যাগ করছি…গুগল সার্চ করলেই আপনি জানতে পারবেন যে,ডিডিসিএ-তে অরুন জেটলির সভাপতি থাকা কালীন সময়টা ছিলো চুড়ান্ত ভ্রষ্টাচারের সময়।তিনি একজন ক্রিকেট ফ্যান নিশ্চয়ই ছিলেন কিন্তু তাঁর সভাপতি থাকার সময়েই সব থেকে বেশি দুর্নীতি হয়েছে ডিডিসিএ-তে।…তাছাড়া স্টেডিয়ামে খেলোয়াড়দের মূর্তি বসে। অরুন জেটলি একজন রাজনীতিবিদ।তাঁর মূর্তি বসানোর কোন দরকার আছে বলে মনে করিনা আমি।… “

105

Leave a Reply