ওয়েব ডেস্ক ডিসেম্বর ২২,২০২০: পরিস্থিতির চাপে আঙ্গুল বাঁকাতে ও হয় কখনো কখনো। বৃহত্তর জটিলতা এড়াতে বোঝাপড়ার ক্ষেত্রে খানিক ঝোঁকার নিদর্শন এবার রাখলো দেশের দক্ষিণের শিক্ষা,স্বাস্থ্য সহ আরো একাধিক ক্ষেত্রে অন্যতম এগিয়ে থাকা রাজ্য কেরল। সম্প্রতি সেখানে স্থানীয় প্রশাসন তথা পঞ্চায়েত স্তরের নির্বাচন অনুষ্ঠিত হয়েছে। তাতে বিপুল সংখ্যাগরিষ্ঠতা পেয়েছে সিপিআইএম নেতৃত্বাধীন এলডিএফ। দ্বিতীয় স্থানে রয়েছে কংগ্রেস নেতৃত্বাধীন ইউডিএফ। তৃতীয় স্থানে বিজেপির এনডিএ। যদিও নীতি আদর্শগত প্রশ্নে সিপিআইএম ও কংগ্রেস এই রাজ্যে প্রবল প্রতিপক্ষ। কিন্তু পঞ্চায়েত নির্বাচনের পর অন্তত ২৫ টি গ্রামপঞ্চায়েত স্তরে বোর্ড গঠনের ক্ষেত্রে হিন্দুত্ববাদী রাজনীতির জনক ও বাহক বিজেপিকে আটকাতে তারা পারস্পরিক সমঝোতায় এসেছে বলে জানা গেছে।

জানা গেছে, অন্তত ২৫ টি ক্ষেত্রে বাম কংগ্রেসের অভ্যন্তরীণ সমঝোতায় বিজেপি বোর্ড গঠন করতে পারেনি। যদিও বাম কংগ্রেস এটাকে নিছক আসন সমঝোতা হিসেবেই প্রতিপন্ন করেছেন। তারা এই বিষয়টিকে জোট বলতে নারাজ। অন্যদিকে কেরল বিজেপি এই সমঝোতাকে নীতি ও আদর্শের জলাঞ্জলি বলে ক্ষোভ প্রকাশ করেছেন। এখন সামনে আসছে এই রাজ্যের বিধানসভা ভোট। তাতে বাম কংগ্রেস এই যুযুধান দুই পক্ষের পারস্পরিক বোঝাপড়া কেন্দ্রীয় ক্ষমতাসীন বিজেপিকে কতটা রুখে দিতে পারে সেটাই প্রশ্ন।

61