নতুন প্রজাতির করোনার সংক্রমণে ব্রিটেইনের পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণের বাইরে। চিকিৎসকদের রিতিমত চিন্তায় ফেলে দিয়েছে করোনার এই মিউট্যান্ট ভাইরাস। ফলে নতুন করে আতঙ্ক ছড়িয়ে পড়েছে ইউরোপের বিভিন্ন দেশে। ফ্রান্স, জার্মানি, নেদারল্যান্ড, গ্রিস সহ ইউরোপের বিভিন্ন দেশ গুলি ব্রিটেনের সাথে উড়ান যোগাযোগ বিচ্ছিন্ন করেছে। ভারত বর্ষেও ছড়িয়ে পড়েছে আতঙ্ক। ইতিমধ্যেই দিল্লির মুখ্যমন্ত্রী অরবিন্দ কেজরিওয়াল দাবি করেছেন লন্ডন – দিল্লি ফ্লাইট সব বাতিল করার। তিনি বলেছেন, “বৃটেনে নতুন প্রজাতির করোনা ফের মহামারীর আকারে ছড়িয়েছে। এই পরিস্থিতিতে আমি দাবি করছি দ্রুত ব্রিটেনের সাথে দিল্লির সব বিমান চলাচলে দ্রুত নিষেধাজ্ঞা জারি করা হোক।”

তবে কেন্দ্রীয় স্বাস্থ্য মন্ত্রী আস্বস্ত করেছেন যে নতুন প্রজাতির ঐ করোনা ভাইরাস নিয়ে ভারতীয়দের আতঙ্কিত হওয়ার কোনো কারণ নেই। সরকার সব সময় সতর্ক দৃষ্টি রেখে চলেছে।

আজ দুপুরে কেন্দ্রীয় স্বাস্থ্য মন্ত্রী ডঃ হর্ষ বর্ধন বলেন, “সরকার এই ব্যাপারে সম্পূর্ণ সতর্ক রয়েছে। আপনারা জানেন গত একবছর ধরে মানুষের সুরক্ষার জন্য আমরা সবরকম ব্যবস্থা নিয়েছে। কখন কী করতে হবে সে ব্যাপারে সরকার সজাগ রয়েছে। আমাকে যদি জিজ্ঞেস করেন তবে আমি বলবো ভয় পাওয়ার কোনো কারণ নেই।”

যদিও স্বাস্থ্য মন্ত্রীর আশ্বাসেও সবাই নিশ্চিত হতে পারছে না। প্রশ্ন উঠছে বছরের গোড়াতেই সরকার যথেষ্ট সময় পেয়েও আন্তর্জাতিক উড়ান বন্ধ না করায় দেশ জুড়ে করোনা মারাত্মক আকার ধারণ করেছে। এরপরেও যদি ব্রিটেনের নতুন করোনা ভাইরাস ভারতে ছড়িয়ে পড়ে তবে সব কিছু নিয়ন্ত্রণের বাইরে না চলে যায়!

107