Categories
অন্য খবর

কঙ্গনার সমস্যা কমছে না, জাভেদ আখতারের করা মানহানির মামলার তদন্ত শুরু করলো পুলিশ

১৯/১২/২০২০,ওয়েবডেস্কঃ

মুম্বই মেট্রোপলিটন কোর্ট কঙ্গনা রানাউতের বিরুদ্ধে জাভেদ আখতারের করা মানহানির মামলার তদন্তের নির্দেশ দিল পুলিশকে। জাভেদের আইনজীবী আদালতকে এবিষয়ে পদক্ষেপ করার আরজি জানানোর পরই জুহু পুলিশকে তদন্তের নির্দেশ দিয়ে ১৬ জানুয়ারি রিপোর্ট জমা দিতে বলে আদালত।

উল্লেখ্য,হৃত্বিক রোশনের সঙ্গে বিতর্ক প্রসঙ্গে জাভেদ আখতারের বিরুদ্ধে তাঁকে বাড়িতে ডেকে হুমকি দেওয়ার অভিযোগ করেন কঙ্গনা। সুশান্ত সিং রাজপুতের মৃত্যুর পর নেপোটিজম বিতর্কেও তিনি জাভেদ আখতারের আপত্তিকর মন্তব্য করেছেন বলে অভিযোগ করেছিলেন বলে অভিযোগ উঠেছে।

প্রসিদ্ধ উর্দু কবি, চিত্রনাট্যকার জাভেদ আখতারের মতে, অভিনেত্রী কঙ্গনা রানাওয়াতের এই ধরনের দাবির ফলে তিনি নানা হুমকি বার্তা ও টেলিফোন পেয়েছেন। এমনকি সোশ্যাল মিডিয়াতেও ট্রোলের শিকার হতে হয়েছে। ফলে সামগ্রিক ভাবে তাঁর ভাবমূর্তির ক্ষতি হয়েছে।

এদিকে বিজেপির সমর্থনে এগিয়ে এসে সম্প্রতি বারবার বিতর্কে জড়িয়েছেন কঙ্গনা রানাউত। এর আগে তিনি ও তাঁর দিদির বিরুদ্ধে সোশ্যাল মিডিয়া ও টেলিভিশন চ্যানেলের মাধ্যমে ধর্মীয় বিদ্বেষ ছড়ানোর অভিযোগ আনেন সাহিল আশরাফালি সায়েদ নামের এক কাস্টিং ডিরেক্টর। তাঁর অভিযোগ, কঙ্গনা এবং রঙ্গোলি উস্কানিমূলক বার্তা ছড়িয়ে দুই ভিন্ন ধর্মের মানুষের মধ্যে বিভেদ তৈরি করার চেষ্টা করছেন। সেই মামলায় আগামী ৮ই জানুয়ারি মুম্বই পুলিশের সামনে হাজিরা দেওয়ার কথা বলিউড অভিনেত্রীর।

মিথ্যে কথা ছড়াতে বেশ অভ্যস্ত হয়ে উঠতে দেখা গেছে কঙ্গনা রানাওয়াতকে।সম্প্রতি দিল্লির কৃষক আন্দোলনে যোগ দেওয়া এক বৃদ্ধাকে ‘শাহিনবাগের দাদি’ বিলকিস বানোর সঙ্গে গুলিয়ে ফেলা ও তাঁর সম্পর্কে বিরূপ মন্তব্য করেও বিপাকে জড়ান বলিউড অভিনেত্রী।

শুধু তাই নয় দিল্লির আন্দোলনরত কৃষকদের বিরুদ্ধে সোশ্যাল মিডিয়ায় লাগাতার বিষোদগার করতে দেখা যাচ্ছে তাঁকে। কৃষকদের ‘দেশদ্রোহী’ বলায় নিন্দার ঝড় ওঠে তাঁর বিরুদ্ধে।

বেশ কিছু দিন ধরে বিজেপির হয়ে প্রচার করছেন কঙ্গনা রানাওয়াত।তাঁর নিরাপত্তার জন্য জেড ক্যাটাগরি নিরাপত্তাও দিয়েছে কেন্দ্রীয় সরকার। তবে বারংবার কুকথা বলে বিতর্কে জড়িয়ে পড়া থেকে ক্ষান্ত হচ্ছেন না কঙ্গনা। জাভেদ আখতারের করা মামলার তদন্তে কি উঠে আসে এখন সেটাই দেখার।

68

Leave a Reply