২৮/১১/২০২০,ওয়েবডেস্কঃ চলতি মাসের শুরুতেই পিকে-কে নিশানা করে ব্যারাকপুরের তৃনমূল বিধায়ক শীলভদ্র বলেছিলেন,”একটা বাজারি কোম্পানি এখানে টাকা নিয়ে ভোট করাতে এসেছে। তারা বলছে ভোট করাবে। আমাকে রাজনীতির জ্ঞান দিচ্ছে। এই পরিবেশে আর মানিয়ে নিতে পারছি না।”

সেই শীলভদ্রের মুখে শুভেন্দুর স্তুতি। তিনি বলেন,আমি শুভেন্দুর ফ্যান। যা করেছে একেবারে ঠিক করেছে। তিন-চারটি জেলার ভালো সংগঠক।  এর পাশাপাশি আগামী নিয়েও ইঙ্গিতবাহী বার্তা দিলেন বারাকপুরের তৃণমূল বিধায়ক। বললেন,’ভবিষ্যৎই বলবে কোন দলে থাকব।’    

শুভেন্দু অধিকারীর মন্ত্রিত্ব ছেড়ে দেওয়া রাজ্যের মানুষের জন্য ক্ষতি বলে মনে করেন শীলভদ্র। অন্যদিকে বিজেপির পথে যাচ্ছেন কি না সরাসরি সে প্রশ্নের উত্তর না দিলেও তাঁর ইঙ্গিতপূর্ণ মন্তব্য, ভবিষ্যৎই বলবে কোন দলে থাকবো। তিনি জানিয়েছেন দু-একদিনের মধ্যেই নিজের নিরাপত্তা রক্ষী ছেড়ে দেবেন। যদিও এর আগেও মুকুল রায়ের ঘনিষ্ঠ হিসেবে পরিচিত শীলভদ্র দত্ত মুকুল রায়ের পথে হাঁটবে বলে অনেকেই ভেবেছিল।তবে তা করেননি। কিন্তু এবার বিধানসভা ভোটের আগে তিনি কী করবেন তার উত্তর সময় দেবে।

60