স্কুলের দিদিমনি প্রোজেক্ট খাতা জমা দিতে বলেছে বলে প্রোজেক্ট খাতা স্কুলে জমা করতে গিয়ে নিখোঁজ নবম শ্রেণির ছাত্রী। প্রায় দু সপ্তাহ হয়ে গেলেও এখন পর্যন্ত ঐ নিখোঁজ ছাত্রীর কোনো সন্ধান পাওয়া যায় নি। ঘটনাটি ঘটেছে রায়গঞ্জ সুভাষগঞ্জ এলাকায়। এখানকার বাসিন্দা চন্দ্র মোহন দাসের কন্যা চম্পা দাস স্থানীয় সুভাষ গঞ্জ গার্লস হাইস্কুলের নবম শ্রেণির ছাত্রী। লক্ষ্মী পূজোর পরে একদিন স্কুলে প্রোজেক্ট জমা দিতে যাচ্ছে জানিয়ে মার সাথে টোটো তে স্কুল পর্যন্ত যায়। ছাত্রীটির মা তাকে স্কুলের সামনে নামিয়ে দিয়ে ডাক্তার দেখাতে যায়। বহুক্ষণ পরে ডাক্তার দেখিয়ে বাড়ি ফিরে এসেও মেয়ে কে বাড়িতে না দেখে খোঁজ খবর শুরু করে। কিন্তু তার আর কোনো খোঁজ পাওয়া যায়নি। দুসপ্তাহ হয়ে গেলেও এখনও তার হদিস পাওয়া যায় নি। এব্যাপারে পুলিশে অভিযোগ দায়ের করা হয়েছে। পুলিশ তদন্ত করেও এখন পর্যন্ত রহস্যের কিনারা করতে পারেনি।

77