২৭/১০/২০২০,ওয়েবডেস্কঃ

চাঁদে জলের অস্তিত্ব পেলো নাসা। ‘নেচার অ্যাস্ট্রোনমি’ পত্রিকায় প্রকাশিত হয়েছে এই তথ্য।এই নতুন গবেষণা সম্পর্কে টুইট করে নাসা জানিয়েছে, ‘‘আমাদের সোফিয়া টেলিস্কোপের সাহায্যে আমরা জলের সন্ধান পেয়েছি চাঁদের সূর্যালোকিত অংশেও।’’ নাসা আরও জানিয়েছে, বিজ্ঞানীরা মনে করছেন এই জল সম্ভবত জমা রয়েছে মাটির ভিতরে, যা পেনসিলের ডগার চেয়েও ছোট ছোট আকৃতির গর্তের মধ্যে রয়েছে। কয়েক দশক আগেও মনে করা হত চাঁদের বুকে জল নেই। তা পুরোপুরি শুষ্ক। কিন্তু প্রায় এক দশক আগে পরপর কয়েকটি আবিষ্কারের মাধ্যমে সেই ধারণা ভেঙে যায়। জানা যায়, চাঁদে জলের অস্তিত্বের কথা।

চাঁদে জল পাওয়ার এই নতুন গবেষণার ফলে চাঁদ নিয়ে মানুষের মধ্যে এতদিনের ধারণাতে বড়সড় পরিবর্তন হতে চলেছে।

চাঁদে যতটা পরিমাণ জল থাকার সম্ভাবনা ছিল তার থেকে অনেকটাই বেশি পরিমাণে জল রয়েছে আমাদের একমাত্র উপগ্রহটিতে।

এই জল ভবিষ্যতের চন্দ্রাভিযাত্রীদের জন্য অত্যন্ত গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা গ্রহণ করতে পারে বলে মনে করছেন বিজ্ঞানীরা।

গত সোমবার আমেরিকার গবেষণা সংস্থা নাসা দু’টি গবেষণার কথা উল্লেখ করে চাঁদে জল থাকার কথা জানিয়েছে। নাসার পক্ষ থেকে জানানো হয়েছে যে, এই প্রথম চাঁদের সূর্যালোকিত অংশেও জলের সন্ধান পাওয়া গেছে।

নাসার স্ট্র্যাটোস্ফেরিক অবজারভেটরি ফর ইনফ্রারেড অ্যাস্ট্রোনোমি তথা টেলিস্কোপ সোফিয়া চন্দ্র গর্ভের জল খুঁজে পেয়েছে বলে জানিয়েছে নাসা।

65