পাঞ্জাবের বিরুদ্ধে ম্যাচের দিনই নারিনের অ্যাকশন নিয়ে প্রশ্ন তুলে দিয়েছলেন দুই অনফিল্ড আম্পায়ার। তার পালটা আবেদন করে নাইটরা। কেকেআরের আবেদন মতো তাঁর অ্যাকশন রিভিউ করে কর্তৃপক্ষ। শেষপর্যন্ত সুনীলের অ্যাকশনে আপত্তিকর কিছু না পাওয়া যাওয়ায় তাঁকে সন্দেহজন অ্যাকশনের তালিকা থেকে বাদ দেওয়া হয়েছে। কিন্তু তা সত্বেও নাইটরা নারিনকে খেলায়নি। আসলে, এই মুহূর্তে সুনীল পুরোপুরি ফিট নন। টস করতে এসে অধিনায়ক মর্গ্যানকে বলছিলেন, “সুনীল শারীরিকভাবে পুরো ফিট নয়। তাই আমরা ঝুঁকি নিতে ছাইছি না।”

প্রথমে ব্যাট করে নেমে নাইটদের ইনিংস শেষ হল মাত্র ১৬৪ রানে। যদিও শুরুটা অন্যদিনের তুলনায় ভাল করেছিল নাইটরা। গিল, রানা, ত্রিপাঠি সবাই শুরুটা ভাল করেছিলেন। কিন্তু সেভাবে বড় রান কেউই করতে পারলেন না। গিল ৩৬, রানা ২৯ এবং ত্রিপাঠি ২৩ রান করলেন। এদিন আরও একবার ব্যর্থ হলেন রাসেল। ১১ বলে করলেন মাত্র ৯ রান।  শেষবেলায় কার্তিক এবং মর্গ্যান জুটি নাইটদের স্কোর সম্মানজনক জায়গায় পৌঁছে দেয়। 

15