ওয়েবডেস্ক অক্টোবর ১৫,২০২০: অপ্রশস্ত রাস্তা। মাঝে বসছে প্রায় দেড় ফুট চওড়া ডিভাইডার। বিগত কয়েক বছরে উল্লেখযোগ্যভাবে বেড়ে গিয়েছে যান চলাচল। রয়েছে অনিয়ন্ত্রিত সংখ্যায় ক্রমবর্ধমান টোটোর দৌরাত্ম্য। শহরের সব জায়গায় ফুটপাত নেই। যেসব জায়গায় ফুটপাথ রয়েছে তাতেও সুদৃশ্য পসরা সাজিয়ে বসেছেন দোকানিরা। এমনটা নয় যে তারা ফুটপাতে দোকান করেন। তাদের দোকান ঘর রয়েছে। কিন্তু তাদের পসরা প্রদর্শনের জন্য ফুটপাতের বেশ খানিকটা অংশ ,কোথাওবা পুরো ফুটপাত দখল করে রাখা হয়েছে। এর ফলে জান হাতে নিয়ে হাঁটতে হচ্ছে পেডস্ট্রিয়ান বা পথচারীদের। সাথে উপরি পাওনা যানজটের যন্ত্রণা। মূলত মোহনবাটি বাজারের সামনে এবং রেলগেট ও লাইন বাজার এর কাছে অফিস আওয়ার্স তো বটেই এমনকি সন্ধ্যের পরেও যানজট দুঃসহ হয়ে পরে।

পথচারীদের পথ খানিকটা সুগম করতে এবার পথে নামল রায়গঞ্জ পৌরসভা। পুরসভার পথে পক্ষ থেকে পৌরপতি শ্রী সন্দীপ বিশ্বাস দোকানির আবেদন জানিয়েছে যেন তারা তাদের পসরা ফুটপাত দখল করে না রাখেন এবং তা যদি করে থাকেন তাই সেগুলো যেন অবিলম্বে সরিয়ে নেয়া হয় এবং ফুটপাত ক্লিয়ার করে দেওয়া হয়। তিনি এও জানিয়েছেন যে নাগরিক সুরক্ষার কথা মাথায় রেখে পুরসভার উদ্যোগ নিয়ে ফুটপাত পরিষ্কার করবে যাতে পথচারীদের পথ চলতে অসুবিধে না হয়।

143