রবিবার রাতের বেলা থানায় উপস্থিত হয়ে এক ব্যক্তি জানালেন তিনি এই মাত্র নিজের স্ত্রীকে কুড়াল দিয়ে কুপিয়ে খুন করে এসেছেন। ঘটনাটি ঘটেছে হাসনাবাদ এর মধ্য বরুনহাট সরকার পাড়ায়। পুলিশ জানায় মৃতের নাম নমিতা মণ্ডল (৩৮)। স্বামীর কুড়ালের আঘাতে ঘটনাস্থলেই তার মৃত্যু হয়। পরে পুলিশ গিয়ে দেহ উদ্ধার করে ময়নাতদন্তের জন্য জেলা বসিরহাট হাসপাতালে পাঠায়। মৃতের স্বামী সাধন মণ্ডলকে পুলিশ গ্রেপ্তার করেছে।
পুলিশ ও স্থানীয় সূত্রে জানা যায় হাসনাবাদ এর মধ্য বরুনহাট সরকার পাড়ায় বাড়ি সাধন মণ্ডলের। পেশায় তিনি সবজি বিক্রেতা। তার স্ত্রী নমিতার সাথে প্রতিবেশী এক যুবকের বিবাহ বহির্ভূত সম্পর্ক নিয়ে বেশ কিছুদিন ধরে স্বামী-স্ত্রীর মধ্যে বিবাদ চলছিল। এদিন সন্ধ্যায় সবজি বিক্রি করে বাড়ি ফিরে স্ত্রীকে দেখতে না পেয়ে রেগে যায় সাধন। বাড়িতে থাকা কুডাল নিয়ে স্ত্রীকে খুঁজতে বের হয়। কিছু সময় খোঁজাখুঁজি করার পর সন্ধ্যা সাড়ে ছটা নাগাদ বাড়ি থেকে কিছুটা দূরে স্ত্রীকে আসতে দেখে শুরু হয় দুজনের মধ্যে বচসা। ওই সময় উত্তেজিত হয়ে সাধন তার স্ত্রীর মাথায় কুড়ালের কোপ বসিয়ে দেয়। ঘটনাস্থলেই মৃত্যু হয় নমিতার। এই ঘটনার পর সাধন হাসনাবাদ থানায় গিয়ে স্ত্রীকে খুন করার কথা স্বীকার করে পুলিশের হাতে ধরা দেয়। পুলিশ তাকে গ্রেপ্তার করে তদন্ত শুরু করেছে।

39