২০/৯/২০২০,ওয়েবডেস্কঃআরও একবার আক্রান্তের থেকে বেশি হলো করোনা জয়ী মানুষের সংখয়া। তার ফলে কমল অ্যাকটিভ রোগীর সংখ্যাও। গত ২৪ ঘণ্টায় আক্রান্ত হয়েছেন ৯২ হাজারের বেশি মানুষ। এর ফলে দেশে মোট আক্রান্তের সংখ্যা ছাড়িয়ে গেল ৫৪ লাখ। অন্যদিকে গত ২৪ ঘণ্টায় সুস্থও হয়ে উঠেছেন ৯৪ হাজারের বেশি মানুষ। তার জেরে মোট সুস্থ হয়ে ওঠা মানুষের সংখ্যা ছাড়িয়ে গিয়েছে ৪৩ লাখ।

কেন্দ্রীয় স্বাস্থ্যমন্ত্রকের বুলেটিন অনুযায়ী, গত ২৪ ঘণ্টায় নতুন করে ৯২ হাজার ৬০৫ জন আক্রান্ত হয়েছেন। এর ফলে ২০ সেপ্টেম্বর, রবিবার, সকাল ৮টা পর্যন্ত ভারতে মোট আক্রান্তের সংখ্যা ৫৪ লাখ ৬১৯ জন।

গত ২৪ ঘণ্টায় ভারতে করোনা আক্রান্ত হয়ে ১১৩৩ জনের মৃত্যু হয়েছে। অর্থাৎ দেশে করোনায় মৃতের সংখ্যা ৮৬ হাজার ৭৫২ জন। ভারতে করোনায় মৃত্যুহার ১.৬১ শতাংশ।

স্বাস্থ্যমন্ত্রকের বুলেটিন জানিয়েছে, গত ২৪ ঘণ্টায় সুস্থ হয়েছে উঠেছেন ৯৪ হাজার ৬১২ জন। ভারতে মোট সুস্থ হয়ে ওঠা ব্যক্তির সংখ্যা ৪৩ লাখ ৩ হাজার ৪৩ জন। এই মুহূর্তে দেশে সুস্থতার হার ৭৯.৬৮ শতাংশ। অর্থাৎ এই মুহূর্তে দেশে কোভিড অ্যাকটিভ রোগীর সংখ্যা ১০ লাখ ১০ হাজার ৮২৪ জন। মোট আক্রান্তের ১৮.৭২ শতাংশ রোগী এই মুহূর্তে অ্যাকটিভ রয়েছেন।

এবার আসা যাক রাজ‍্যগুলির করোনা পরিস্থিতি কেমন –

কেন্দ্রীয় সরকারের পরিসংখ্যান অনুসারে সর্বাধিক সংক্রমণের ঘটনা ঘটেছে মহারাষ্ট্রে, ১১,৮৮,০১৫ টি, শেষ ২৪ ঘন্টায় ২০,৫১৯ জনের শরীরে এই ভাইরাসের উপস্থিতি ধরা পড়েছে। দ্বিতীয় স্থানে রয়েছে অন্ধ্রপ্রদেশ, সেখানে ৬,১৭,৭৭৬(+৮২১৮) জনের শরীরে এই ভাইরাসের উপস্থিতি ধরা পড়েছে। তৃতীয় স্থানে থাকা তামিলনাড়ুতে করোনা আক্রান্তের সংখ্যা ৫,৩৬,৪৭৭(+৫৫৬৯)। চতুর্থ স্থানে রয়েছে কর্ণাটক, সেখানে সংক্রমিতের সংখ্যা ৫,১১,৩৪৬(+৮৩৬৪) জন। পঞ্চম স্থানে থাকা উত্তরপ্রদেশে সংক্রমিতের সংখ্যা ৩,৪৮,৫১৭(+৫৭২৯) জন। দিল্লিতে ২,৪২,৮৯৯(+৪০৭১) জন, পশ্চিমবঙ্গে ২,২১,৯৬০(+৩১৮৮) জন ও ওড়িশায় ১,৭৫,৫৫০(+৪২০৯) জনের শরীরে এই সংক্রমণ মিলেছে। তেলেঙ্গানাতে ১,৭১,৩০৬(+২১৩৭) জন, বিহারে ১,৬৬,৭৮৮(+১৫৭০) জন, আসামে ১,৫৫,৪৫৩(+২৫৯৫) জন, কেরালায় ১,৩১,০০৫(+৪৬২৪) জন, গুজরাটে ১,২১,৭৬৮(+১৪৩২) জন,  জন, রাজস্থানে ১,১৩,১২৪(+১৮৩৪) জন, হরিয়ানাতে ১,০৮,৯৫২(+২৬৯১) জন, মধ্যপ্রদেশে ১,০৩,০৬৫(+২৬০৭) জন, পাঞ্জাবে ৯৫,৫২৯(+২৬৯৬) জন, ছত্তিশগড়ে ৮৪,২৩৪(+২৬১৭) জন, ঝাড়খন্ডে ৬৯,৮৬০(+১২৮২) জন, জম্মু ও কাশ্মীরে ৬২,৫৩৩(+১৪৯২) জন, উত্তরাখণ্ডে ৪০,০৮৫(+২০৭৮) জন, গোয়াতে ২৮,০২২(+৬৪৩) জন, পুদুচেরিতে ২২,৪৫৬(+৫৪৩) জন, ত্রিপুরায় ২২,০৩২(+৫৪৮) জন, হিমাচল প্রদেশে ১১,৯০৮(+২৮৬) জন, চন্ডীগড়ে ৯,৭৯৬(+২৯০) জন, মণিপুরে ৮,৭২৪(+১১৭) জন,   অরুণাচল প্রদেশে ৭,২৫০(+২৪৫) জন, নাগাল‍্যান্ডে ৫,৩৯২(+৩৫) জন, মেঘালয়ে ৪,৫৫৭(+১১২) জন, আন্দামান নিকোবর দ্বীপপুঞ্জে ৩,৬৪৪(+১৩) জন, লাদাখে ৩,৭০৮(+৭৩) জন, দাদরা নগর হাভেলি এবং দমন ও দিউতে ২,৮৮৭(+২৮) জন, সিকিমে ২,৪২৩(+১২০) জন ও মিজোরামে ১,৫৭৮(+৩০) জনের শরীরে সংক্রমণ পাওয়া গেছে। দেখে নেওয়া যাক রাজ‍্যগুলিতে করোনায় মোট কত জনের মৃত‍্যু হয়েছে এবং শেষ ২৪ ঘন্টায় কতজন মারা গেছেন –

এক নজরে দেখে নেওয়া যাক কোন রাজ্যে কতজন মারা গেছে।

মৃতের সংখ্যার বিচারে রাজ‍্যগুলির মধ্যে প্রথম রয়েছে মহারাষ্ট্র, এখনও পর্যন্ত মোট ৩২,২১৬(+৪২৫) জন আক্রান্তের মৃত্যু হয়েছে রাজ‍্যে। তামিলনাড়ুতে ৮,৭৫১(+৬৬) জন, কর্ণাটকে ৭,৯২২(+১১৪) জন, অন্ধ্রপ্রদেশে ৫,৩০২(+৫৮) জন, উত্তরপ্রদেশে ৪,৯৫৩(+৮৪) জন, দিল্লিতে ৪,৯৪৫(+৩৮) জন,  পশ্চিমবঙ্গে ৪,২৯৮(+৫৬) জন, গুজরাটে ৩,৩০২(+১৬) জন, পাঞ্জাবে ২,৭৫৭(+৪৯) জন, মধ্যপ্রদেশে ১,৯৪৩(+৪২) জন,  রাজস্থানে ১,৩২২(+১৪) জন, হরিয়ানায় ১,১২০(+২৮) জন, তেলেঙ্গানায় ১,০৩৩(+৮) জন, জম্মু ও কাশ্মীরে ৯৮৭(+২১) জন, বিহারে ৮৬১(+২) জন, ওড়িশায় ৬৯১(+৯) জন, ছত্তিশগড়ে ৬৬৪(+১৯) জন, ঝাড়খন্ডে ৬১৫(+১৩) জন, আসামে ৫৪৮(+৮) জন, কেরালায় ৫১৯(+১৮) জন, উত্তরাখন্ডে ৪৭৮(+১৪) জন, পুদুচেরীতে ৪৬২ জন, গোয়াতে ৩৪২(+৭) জন, ত্রিপুরাতে ২৩৯(+৪) জন, চন্ডীগড়ে ১১৯(+৬) জন, হিমাচল প্রদেশে ১১৬(+৫) জন, আন্দামান নিকোবর দ্বীপপুঞ্জে ৫২ জন, মণিপুরে ৫৫(+৩) জন, লাদাখে ৪৯(+১) জন, মেঘালয়ে ৩৬(+৪) জন, সিকিমে ২৫(+১) জন, নাগাল‍্যান্ডে ১৫ জন, অরুণাচল প্রদেশে ১৩ জন, দাদরা নগর হাভেলি এবং দমন দিউতে ২ জনের মৃত্যু হয়েছে।

25