প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদীর ৭০ তম জন্মদিন আজ আর আজকের দিনটিকে জাতীয় বেরোজগার দিবস হিসেবে পালন করে ক্রমবর্ধমান বেকারত্বের বিরুদ্ধে ক্ষোভ উগ্রে দিচ্ছে নেটিজেনদের একটা বড় অংশ।

একদিকে মোদীর জন্মদিন উপলক্ষে গতকাল মধ্যরাত থেকেই দেশের বিভিন্ন অংশে তার সমর্থকরা বাজি পুড়িয়ে, কেক কেটে উদযাপনে মেতেছে। আর এমন ‘খুশির’ দিনেই সোশ্যাল মিডিয়ার ভাইরাল ট্রেন্ড হয়ে উঠেছে জাতীয় বেরোজগার দিবস। বেকারত্বের ক্ষোভ প্রকাশের উপায় হিসেবে এই দিনটাই বেছে নিয়েছেন নেটিজেনদের বড় অংশ।

সমস্যা খুব নতুন নয়। করোনা সংক্রমণ এবং তার জেরে দীর্ঘ লকডাউন—সব মিলিয়ে মারাত্মক সংকটে দেশের অর্থনীতি। জিডিপি কমে যাচ্ছে হু হু করে। সাধারণ মানুষের চাকরি যাচ্ছে। কর্মসংস্থান কার্যত শূন্য। দেশজুড়ে রেকর্ড গড়েছে শিক্ষিত অথচ বেকার তরুণ-তরুণীর সংখ্যা। অথচ এই পরিস্থিতিতে সরকারি চাকরির পরীক্ষা, নিয়োগ—এসব দিতে তেমন উৎসাহ চোখে পড়ছে না সরকারের।

এই উদাসীনতার ও অক্ষমতার প্রতিবাদের জন্য এবার প্রধানমন্ত্রীর জন্মদিনকেই বেছে নিয়েছে দেশের যুবসমাজের বড় একটা অংশ। তাই সোশ্যাল মিডিয়ায় মোদীর জন্মদিন পালিত হচ্ছে ‘জাতীয় বেরোজগার দিবস’ বা ‘ন্যাশনাল আনএমপ্লয়মেন্ট ডে’ হিসেবে।

সকাল থেকেই #National Unemployment Day, #রাষ্ট্রীয় বেরোজগার দিবস, #বেরোজগার দিবস-এর মতো একাধিক হ্যাশট্যাগের টুইটে ছেয়ে গিয়েছে টুইটার। সকালের মধ্যেই কয়েক লক্ষের বেশি পোস্ট হয়ে গিয়েছে এই হ্যাশট্যাগে