১৩/৯/২০২০,ওয়েবডেস্কঃসংসদে অধিবেশন শুরুর আগে এবার করণা আক্রান্ত বালুরঘাটের বিজেপি সাংসদ সুকান্ত মজুমদার। কাল থেকেই শুরু হচ্ছে সংসদের বাদল অধিবেশন। তার আগেই রুটিন করোনা পরীক্ষায় বালুরঘাটের সাংসদের রিপোর্ট কোভিড পজিটিভ আসে। দিন কয়েক আগেই জলপাইগুড়ির বিজেপি সাংসদ জয়ন্ত রায় করোনায় আক্রান্ত হন।

এদিকে চলতি মাস থেকে দেশে দৈনিক আক্রান্তের সংখ্যা লাগামছাড়া পর্যায়ে পৌঁছে গিয়েছে। একমাস আগে অবধিও সংক্রমণের হার ৬০ থেকে ৭০ হাজারের ঘরে ছিল, কিন্তু এখন সেটা বেড়ে ৯০-এর ঘর ছাড়িয়েছে। আর কয়েকদিনের মধ্যে ছাপিয়ে যাবে লাখের ঘরও। গত ২৪ ঘন্টায় দেশে নতুন করে আক্রান্ত হয়েছে ৯৭ হাজার ৫৭০ জন মানুষ। যার ফলে দেশে মোট সংক্রমিতের সংখ্যা বেড়ে হয়েছে ৪৬ লক্ষ ৬৯ হাজার ৯৮৪।

অন্যদিকে দৈনিক মৃত্যুর হারও ক্রমশই উর্ধ্বমুখী। গত ২৪ ঘন্টায় ১২০১ জনকে দেশে মৃত্যুর সংখ্যা বেড়ে হয়েছে ৭৭ হাজার ৪৭২। যদিও আক্রান্ত ও মৃত্যুর পাশাপাশি দেশে বেড়েছে সুস্থতার হারও। দেশে এখনও অবধি করোনার থাবা থেকে মুক্ত হয়ে রিকভার হয়েছেন ৩৬ লক্ষ ২৪ হাজার ১৯৬, যাঁদের মধ্যে ৮১ হাজার ৫৩৩ জন গত ২৪ ঘন্টায়। যার ফলে ভারতে দৈনিক অ্যাকটিভ কেসের সংখ্যা কমে হয়েছে ১৪ হাজার ৮৩৬। মোট সক্রিয় কেসের সংখ্যা পৌঁছেছে ৯ লক্ষ ৫৮ হাজার ৩১৬।

রাজ্যের মধ্যে শীর্ষস্থানে রয়েছে মহারাষ্ট্রের নাম। দৈনিক আক্রান্তের সংখ্যার নিরিখে অতীতের সমস্ত রেকর্ড ভেঙে দিয়েছে এই রাজ্য। গত ২৪ ঘন্টায় মারাঠাভূমে ২৪ হাজার ৮৮৬ জন সংক্রমিত হয়েছেন করোনায়। যার ফলে মোট আক্রান্তের সংখ্যা পৌঁছেছে ১০ লক্ষ ১৫ হাজার ৬৮১-তে। মৃতের সংখ্যা বেড়ে হয়েছে ২৮ হাজার ৭২৪। অন্ধ্রপ্রেদেশে দৈনিক আক্রান্তের সংখ্যা ১০ হাজারের ঘর ছুঁইছুঁই। গত ২৪ ঘন্টায় এই রাজ্যে ৯ হাজার ৯৯৯ জনকে নিয়ে সংক্রমিতের সংখ্যা বেড়ে হয়েছে ৫ লাখ ৪৭ হাজার ৬৮৬। মৃত্যু হয়েছে ৪ হাজার ৭৭৯ জনের।

অন্ধ্রের পরেই রয়েছে তামিলনাড়ুর নাম। এখানে গত ২৪ ঘন্টায় সংক্রমিতের হার অনেটাই কমেছে। ৫ হাজার ৫১৯ জনকে নিয়ে এই রাজ্যে আক্রান্তের সংখ্যা বেড়ে হয়েছে ৪ লক্ষ ৯১ হাজার ৫৭১। এখনও পর্যন্ত মৃত্যু হয়েছে ৮ হাজার ২৩১ জনের। চতুর্থস্থানে রয়েছে কর্ণাটকের নাম। দৈনিক আক্রান্তের সংখ্যা বেড়ে হয়েছে ৯ হাজার ৪৬৪। যার ফলে সংক্রমিতের সংখ্যা বেড়ে হয়েছে ৪ লাখ ৪০ হাজার ৪১১। রাজ্যে মৃতের সংখ্যা বেড়ে হয়ছে ৭ হাজার ৬৭ জনের।

32