মাত্র কিছুদিন আগেই খবরের শিরোনামে এসেছিল জলপাইগুড়ি জেলার রাজগঞ্জ। এখানে সন্ন্যাসীকাটা গ্রাম পঞ্চায়েতের লাল স্কুল এলাকায় এক নাবালিকাকে তুলে নিয়ে গিয়ে গণধর্ষণের পর হত্যা করে সেপটিক ট্যাঙ্কে ফেলে দেওয়ার ঘটনায় উত্তাল হয়েছিল রাজগঞ্জ এলাকা।  আবার সেই রাজগঞ্জেই দুই আদিবাসী নাবালিকা বোনকে একসঙ্গে গণধর্ষণের ঘটনা ঘটল। অপমানের একসাথে বিষ খায় দুই বোন। ইতিমধ্যেই বড় বোনের মৃত্যু ঘটেছে, ছোট বোন এখনো মৃত্যুর সঙ্গে পাঞ্জা লড়ছেন। পর পর গণধর্ষণের ঘটনায় রাজগঞ্জ থানার ভূমিকা নিয়ে জন মানসে তীব্র ক্ষোভ সঞ্চারিত হয়েছে বলে খবর।

ঘটনাস্থল রাজগঞ্জ ব্লকের সন্ন্যাসীকাটা গ্রাম পঞ্চায়েতের নবগ্রাম এলাকা।  দুই নাবালিকার পরিবার সূত্রে জানা যায় শুক্রবার রাতে দুজন দোকান থেকে ফেরার সময় প্রতিবেশী পাঁচ যুবক তাদের মুখ ঢেকে টেনে পাশের চা বাগানে নিয়ে যায়। বড় বোনকে একাধিকবার ধর্ষণ করে ৫ যুবক।  ছোট বোনকে ধর্ষণ করার চেষ্টা করলে তারা দুজন কোনোক্রমে পালিয়ে বাড়ি ফিরে আসে। বাড়ি ফিরে দুদিন কাউকে কিছুই জানায়নি তারা। লোকলজ্জার ভয়ে রবিবার বাড়ি থেকে বেরিয়ে গিয়ে দুই বোনই একত্রে বিষপান করে বাড়ি ফিরে আসে।  আশঙ্কাজনক অবস্থায় দুই বোনকেই উত্তরবঙ্গ মেডিক্যাল কলেজ ও হাসপাতালে ভর্তি করা হয়।  সোমবার দুপুরে সেখানেই মৃত্যু হয় বড় বোনের।  পরিবারের লোকজন জিজ্ঞাসাবাদ করায় সমস্ত ঘটনা খুলে বলে ছোট বোন। মঙ্গলবারও তার অবস্থা আশঙ্কাজনক রয়েছে। মৃত্যুর সঙ্গে পাঞ্জা লড়ছে সে। 

হাসপাতালের বেডে শুয়ে ছোট বোনের দেওয়া জবানবন্দি ভিডিওটি রাজগঞ্জ থানার পুলিশের হাতে তুলে দিয়েছে মৃত নাবালিকার দাদা।  আশঙ্কাজনক অবস্থায় হাসপাতালের বেডে শুয়ে ছোট বোন ঘটনার বিবরণে জানায় প্রতিবেশী বাপি বিশ্বাস, শিবু বিশ্বাস, চয়ন বর্মন, মিলন বিশ্বাস, সিলন বিশ্বাস তাদের জোর করে চা বাগানে তুলে নিয়ে যায়।  দিদিকে তারাই একাধিকবার ধর্ষণ করে বলে অভিযোগ করেছে সে।  অভিযুক্তরা তাকেও ধর্ষণ করবার চেষ্টা করেছিল বলে জানিয়েছে এই নাবালিকা।  নাবালিকার অভিযোগের ভিত্তিতেই রাজগঞ্জ থানার পুলিশ বাপি বিশ্বাস, শিবু বিশ্বাস ও চয়ন বর্মনকে গ্রেপ্তার করে।  মঙ্গলবার অভিযুক্তদের জলপাইগুড়ি জেলা আদালতে তোলা হলে তাদের জিজ্ঞাসাবাদের জন্য ৭ দিন পুলিশ হেপাজতে দিয়েছেন ।

অভিযুক্ত বাকি দুজন মিলন বিশ্বাস ও শিলন বিশ্বাসের খোঁজে তল্লাশি চালাচ্ছে রাজগঞ্জ থানার পুলিশ। ঘটনাস্থলে উত্তেজনা থাকায় বিশাল পুলিশ বাহিনী মোতায়েন করা হয়েছে।  করেছে।

19