ওয়েব ডেস্ক সেপ্টেম্বর ৭,২০২০: এর আগে রিয়া চক্রবর্তীর আইনজীবী সতীশ মানেশিন্দে এক সংবাদ মাধ্যমে অভিযোগ জানান সুশান্তের মৃত্যুর ঠিক ৫ দিন আগে সুশান্তের দিদি প্রেসক্রিপশন ছাড়াই বদলে দেন সুশান্তের ওষুধ। দিল্লির এক ডাক্তারের বিরুদ্ধে প্রেসক্রিপশন জালিয়াতির অভিযোগ ও করেন তিনি।

এবার ‘জলেবি’ সিনেমার অভিনেত্রী মুম্বই পুলিশের কাছে প্রয়াত অভিনেতার দিদি প্রিয়ঙ্কা সিংহ ও রাম মনোহর লোহিয়া হাসপাতালের চিকিৎসক তরুণ কুমারের বিরুদ্ধে জালিয়াতি অভিযোগ, এনডিপিএস আইন ও টেলি মেডিসিন প্র্যাকটিশ গাইডলাইন ২০২০ অনুযায়ী এফআইআর দায়ের করেছেন। ‘মেরে ড্যাড কি মারুতি’ সিনেমার অভিনেত্রী প্রিয়ঙ্কা সিংহ ও চিকিৎসক তরুণ কুমারের বিরুদ্ধে সুশান্তর জন্য আউট-পেশেন্ট ডিপার্টমেন্ট পার্সন হিসেবে ভুয়ো মেডিক্যাল প্রেসক্রিপশন পাঠানোর অভিযোগে এফআইআর দায়ের করেছেন। এফআইআরে রিয়ার অভিযোগ, ৮ জুন সুশান্ত যখন মুম্বইতে ছিলেন, তখন ওই প্রেসক্রিপশন পাঠানো হয়। এফআইআরে রিয়া বলেছেন, ওই প্রেসক্রিপশনে লিব্রিয়াম, নেক্সিটো ও লোনাজেপের মতো ওষুধ, যেগুলি সাইকোট্রপিক সাবস্ট্যান্স হিসেবে এনডিপিএস আইনের তালিকাভূক্ত। এই আইন অনুসারে কোনও নারকোটিক্স বা সাইকোট্রপিক সাবস্ট্যান্স এভাবে প্রেসক্রাইব করা যায় না এবং তা টেলিমেডিসিন প্র্যাকটিশ গাইডলাইন্সের ৩.৭.১.৪-এর আওতায় অপব্যবহার।

সুশান্ত সিংহ রাজপুতের মৃত্যুর ঘটনায় মাদক-যোগের বিষয়টি খতিয়ে দেখছে নারকোটিকস কন্ট্রোল ব্যুরো (এনসিবি)। ইতিমধ্যেই এনসিবি সুশান্তর বান্ধবী রিয়া চক্রবর্তীর ভাই সৌভিক চক্রবর্তী, স্যামুয়েল মিরান্ডা, দীপেশ সবন্ত ও মাদক ব্যবসায়ীদের গ্রেফতার করেছে। এখন এনসিবি রিয়াকে জিজ্ঞাসাবাদ করেছে। এরমধ্যেই এই এফআইয়ার সুশান্ত মৃত্যুর মামলায় নতুন এক রহস্যের দরজা খুলে দিলো।

7