৪/৯/২০২০,ওয়েবডেস্কঃআবারও চরম অমানবিক নিদর্শনের সাক্ষী হল শহর কলকাতা। করোনা আক্রান্ত ফ্ল্যাটের প্রতিবেশী পরিবারের দরজায় বাইরে থেকে চুপিসারে তালা ঝুলিয়ে দিলো যুবক। পুলিশ খবর পেয়ে আজ সকালে আবাসনে পৌঁছে তালামুক্ত করেন তাঁদের। ঘটনাটি ঘটেছে কেষ্টপুরের এক আবাসনে।

পুলিশ সূত্রে খবর, কেষ্টপুর ঘোষপাড়া এলাকার আবাসনের ছ’তলার এক ফ্ল্যাটের বাসিন্দার করোনা পজিটিভ রিপোর্ট আসে কয়েক দিন আগে। তাঁকে বাগুইআটির এক হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে। স্বাস্থ্য দফতরের তরফে ওই পরিবারের বাকি সদস্যেরও করোনা পরীক্ষা করা হয়। গতকাল, বৃহস্পতিবার রিপোর্টে দেখা যায়, আক্রান্ত মহিলার শাশুড়িও করোনা পজিটিভ। তবে তাঁর তেমন উপসর্গ না থাকায় তাঁকে হোম আইসোলেশনে থাকার পরামর্শ দেন চিকিৎসকরা। এই খবর জানাজানি হতেই প্রতিবেশীদের মধ্যে গুঞ্জন শুরু হয়।আর তাদেরই একজন দীপ সেনগুপ্ত নামের বাসিন্দা সব সীমা অতিক্রম করে চুপিচুপি তালা লাগিয়ে দেয় আক্রান্ত পরিবারের ফ্ল্যাটে! আবাসনের সিসিটিভি ফুটেজে দেখা গিয়েছে, দীপ সেনগুপ্ত মাস্ক, গ্লাভস, ফেসশিল্ড পরে মাঝরাতে চুপিসারে উপরে উঠে ছ’তলার ওই ফ্ল্যাটে দরজার বাইরে থেকে তালা লাগিয়ে দিচ্ছেন।

আজ সকালে দরজা খুলতে গিয়ে না খুলতে পেরে বাইরে থেকে তালা দেওয়া বুঝতে পারেন। এর পরে তিনি পুলিশে খবর দেন। পুলিশ এসে তালা ভাঙে। পুলিশ এরপর সিসিটিভি ফুটেজ খতিয়ে দেখে দীপ সেনগুপ্তর কীর্তির পর্দা ফাঁস করেন। পুলিশি জেরার মুখে অবশেষে ঐ যুবক স্বীকারও করে নেন যে তিনি সংক্রমণের ভয়েই ওই কাণ্ড ঘটিয়েছেন।তবে ঐ গৃহকর্তার পক্ষ থেকে ঐ যুবকের বিরুদ্ধে কোনো লিখিত অভিযোগ হয়নি।

8