” সুশান্ত সিং রাজপুতের মৃত্যু সত্যিই মর্মান্তিক, খুবই দুর্ভাগ্যজনক, কিন্তু বেশ কিছুদিন হল মিডিয়া প্রতিভাবান এই অভিনেতার মৃত্যুকে একেবারে সার্কাসে পরিণত করেছে। মিডিয়া ট্রায়ালের মধ্যে দিয়ে প্রতিনিয়ত চলেছেন রিয়া চক্রবর্তী”! মঙ্গলবার ট্যুইটারে এভাবেই সোজাসাপটা মিডিয়ার ভুমিকার সমালোচনা করলেন বলিউড নক্ষত্র বিদ্যা বলান।

সোমবার তেলগু অভিনেত্রী লক্ষ্মী মানচু একটি ট্যুইট করেন, যেখানে তিনি লেখেন রিয়া এবং সুশান্ত দুজনের জন্যই সুবিচার চাওয়া উচিত। এমনকী তিনি বলেন, ‘রিয়াকে এখন যে অবস্থার মধ্যে দিয়ে যেতে হচ্ছে তার জন্য ইন্ডাস্ট্রির বাকী সহকর্মীদের রিয়ার পাশে দাঁড়ানো উচিত। যেভাবে তাঁর জীবন ক্রমশ কঠিন হয়ে উঠছে তখন তাঁর পাশে থাকাটা আমাদের কর্তব্য বলে মনে করি’। লক্ষ্মী আরও লেখেন,’এই মিডিয়া ট্রায়ালের নাম করে রিয়াকে ভিলেন বানানো হচ্ছে। রিয়াকে ঘৃণ্য অপরাধী বলা হচ্ছে। তাঁর এই পোস্টটি রিট্যুইট করে সমর্থন জানান তাপসী পান্নুও’।

লক্ষ্মীর এই ট্যুইটের পরিপ্রেক্ষিতে বিদ্যা আরও লেখেন, ‘ভগবান তোমার মঙ্গল করুন। এভাবে জোর দিয়ে সত্যি কথাটা সর্বসমক্ষে বলবার জন্য। মিডিয়া সত্যিই সার্কাস শুরু করেছে সুশান্তের মৃত্যু নিয়ে। রিয়াকে নিয়ে প্রতিদিন এতরকম এত অপমানজনক কথা বলা হচ্ছে যে একজন মহিলা হিসেবে আমার কতখানি খারাপ লাগছে তা ভাষায় প্রকাশ করতে পারব না।

রিয়া চুপ করে আছে মানে এই নয় যে ও দোষী। নাকি আপনাদের মনে হয়েছে যে নির্দোষ প্রমাণিত না হওয়া অবধি রিয়াই দোষী? ভারতীয় সংবিধান এবং বিচার ব্যবস্থার উপর দেশবাসীর শ্রদ্ধা রাখা উচিত। আর নিতান্তই না পারলে দয়া করে আইনকে তার মতো করে চলতে দিন’। লক্ষ্মী সোমবার আরও লেখেন, ‘আমি রিয়া চক্রবর্তীর সম্পূর্ণ সাক্ষাৎকারটি দেখেছি। আমি এরপর অনেক ভাবলাম। আমার মনে হয়েছে আমি যদি এখন রিয়াকে সমর্থন না করি তাহলে নিজেই আত্মগ্লানিতে ভুগব। আমি দেখছি সব বোঝার পরও আমাদের ইন্ডাস্ট্রিতে প্রচুর মানুষ চুপ করে আছেন এবং মিডিয়ার এই রঙচঙে সার্কাসকে সমর্থন করে রিয়াকে সর্বসমক্ষে দোষী বানাতে সাহায্য করছেন।

13